প্রধান মেনু

আটঘরিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মহিলাসহ ৮ জন আহত

স্টাফ রিপোর্টার
পাবনরা আটঘরিয়া পৌরসভার উত্তরচক কেরানির ঢাল মহল্লায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মহিলাসহ ৮ আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে নুর হোসেন (৬০) , নিজাম উদ্দিন (৩৪), মনোয়ারা খাতুন (৫৪), নাসরিন খাতুনকে (৩০) গুরুতর অবস্থায় পাবনা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানায়, আটঘরিয়া পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের উত্তচক কেরানির মহল্লার গ্রামের নুর হোসেনের ছেলে নিজাম উদ্দিন রোববার বাড়ীর সিম খেতের পানি বের করার জন্য জমিতে কাজ করছিলেন। এসময় চক-ধলেশ্বর গ্রামের বাদশার ছেলে মমিন এসে তাকে বাধা দিলে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সংঘর্ষ বেঁধেগেলে নিজাম উদ্দিন ও তার স্ত্রীকে বেধরক পেটালে মুমুর্ষ অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকে।

বাদশার ছেলে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের গাড়ির ড্রাইভার সিদ্দিকুর রহমান কিরন অফিসে অনুপস্থিত থেকে হত্যার উদ্দেশ্যে নিজাম উদ্দিনের বাবা নুর হোসেনকে বাড়ি থেকে ডেকে নিজ বাড়িতে নিয়ে সিদ্দিকুর রহমান কিরন, আব্দুল মমিন, মোস্তফা, এবং বাদশাসহ পরিবারের সবাই হাসুয়া, খুন্তা ও তালের রুলের লাঠি দিয়ে বেধরক পেটাতে থাকে। এর একপর্যায়ে তাকে বাচাতে গেলে একে একে একই পরিবারের নুর হোসেন (৬০), নিজাম উদ্দিন (৩৪), মনোয়ারা খাতুন (৫৪), নাসরিন খাতুনকে (৩০) সবাইকে মাথা ফাটিয়ে দেয় এবং বুকের হাড় ও হাত ভেঙ্গে দেয়। পরে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে আহতদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে আটঘরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এসময় শহিদুল ইসলাম, সুমি খাতুন, সাজেদা খাতুন, সুমাইয়া খাতুন আহত হয়। পরে তাদের অবস্থা অবনিত ঘটলে চিকিৎসক দ্রুত পাবনা জেনারের হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। এঘটনায় আটঘরিয়া থানার মামলা হয়েছে।