প্রধান মেনু

আত্রাই নদীতে বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার গুরুদাসপুরে ৫টি অবৈধ সোঁতিজাল উচ্ছেদ

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.
নাটোরের গুরুদাসপুরে আত্রাই নদীতে ইউএনও মো. তমাল হোসেনের নেতৃত্বে উচ্ছেদ করা হলো তিনটি অবৈধ সোঁতিজালের বাঁধ।
শনিবার দিনভর অভিযান চালিয়ে আত্রাই নদীর কালাকান্দর, বিলসাঘাট ও যোগেন্দ্রনগর পয়েন্টে বিশালাকারের তিনটি সোঁতিজালের বাঁধ উচ্ছেদ করা হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার একই নদীর সাবাগাড়ী ও হরদমা নালায় দুটি সোঁতিজাল উচ্ছেদ করেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. আবু রাসেল। এসময় সিনিয়র উপজেলা মৎস কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন উপস্থিত ছিলেন।
স্থানীয় ও প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ¯্রােতস্বীনি নদী আত্রাই, বিশানীসহ বিভিন্ন পয়েন্টে নদীর স্বাভাবিক ¯্রােতকে সোঁতিজাল দিয়ে বাধাগ্রস্থ করে প্রতিবছরের মত এবারও মাছ শিকারের মহোৎসব চলছিল। এক শ্রেণির অসাধু ব্যক্তি প্রভাব খাটিয়ে অবৈধভাবে ওই মাছ শিকার করে নদীর ¯্রােতকে বাঁধাগ্রস্থ করে। পানি প্রবাহে বাঁধাগ্রস্থের কারণে চলবিলের রবিশস্য আবাদে ব্যাপকভাবে বিঘœ ঘটে। উচ্ছেদের সময় সোঁতিজাল মালিকদের না পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে আইনি কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে জানা গেছে।