প্রধান মেনু

আফগানিস্তান থেকে ৫৪০০ মার্কিন সেনা প্রত্যাহার হবে

তালেবানের সঙ্গে শান্তি আলোচনার ‘মূলনীতি’ হিসেবে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করবে যুক্তরাষ্ট্র। আফগানিস্তান বিষয়ক শীর্ষ মার্কিন আলোচক জালমাই খলিলজাদ জানিয়েছেন, আগামী ২০ সপ্তাহের মধ্যে ৫৪০০ সেনা তুলে নেওয়া হবে। বর্তমানে আফগানিস্তানে অবস্থান করা মার্কিন সেনার সংখ্যা প্রায় ১৪ হাজার।

আফগানিস্তানে দেওয়া এক টেলিভিশন সাক্ষাত্কারে সম্ভাব্য ঐ চুক্তি নিয়ে কথা বলেন খলিলজাদ। তবে এই চুক্তি চূড়ান্ত হওয়ার আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অনুমোদন পেতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে নবম ধাপের আলোচনার ফলাফল আফগান সরকারকে জানানোর পর খলিলজাদ ঐ সাক্ষাত্কার দেন। তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের বিনিময়ে তালেবান কর্তৃপক্ষকে নিশ্চিত করতে হবে আফগানিস্তান আবারও এমন কোনো সশস্ত্র গোষ্ঠীর ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহূত হবে না, যারা যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্রদের ওপর হামলা চালাতে চায়। তিনি বলেন, ‘আমরা একমত হয়েছি, যদি চুক্তি অনুযায়ী সব শর্ত ঠিকঠাক চলে তাহলে আমরা বর্তমানে চালু থাকা পাঁচটি ঘাঁটি ১৩৫ দিনের মধ্যে ছেড়ে দেব।’

তালেবানের এক মুখপাত্র বলেছেন, খলিলজাদ যে পরিমাণ সেনা প্রত্যাহারের কথা বলেছেন তা ঠিকই আছে। বিবিসি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের বাকি সেনা প্রত্যাহারের বিষয়টি কয়েকটি শর্তের ওপর নির্ভর করবে। এর মধ্যে রয়েছে আফগান সরকার ও তালেবানের মধ্যে শান্তি আলোচনা শুরু এবং যুদ্ধবিরতি কার্যকর। এদিকে চুক্তির বিষয়ে কোনো মন্তব্য করার আগে আশরাফ ঘানি তা ভালোভাবে খতিয়ে দেখবেন বলে জানিয়েছেন তার এক মুখপাত্র। তিনি জানান, আফগান সরকারের কাছে প্রতীয়মান হতে হবে যে, তালেবান সত্যিই শান্তি চায়। বিবিসি, রয়টার্স