প্রধান মেনু

ঈশ্বরদীতে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা আটক ৬

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
ঈশ^রদীতে পঞ্চম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগ রূপপুর পারমাণবিক বিদু্যুৎ প্রকল্পের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ম্যাক্সের উপ-ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মীর কনস্ট্রাকশনের ৬ শ্রমিককে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে আজ বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯ টায় ঈশ^রদীর ৫৬ নং চরসাহাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে একটি ব্যাচেলার ভাড়া বাড়িতে।
স্থানীয়রা জানান, পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রী সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে চরসাহাপুর আলতাব হোসেনের বাড়ির সামনে দিয়ে স্কুলে যাচ্ছিল। আলতাবের বাড়িতে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকরা ভাড়া থাকে।। স্কুল ছাত্রী ওই বাড়ির সামনে এলে শ্রমিকরা তাকে জোরপূর্বক ঘরের মধ্যে নিয়ে ধর্ষনের চেষ্টা করে। এসময় ছাত্রীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে বখাটে শ্রমিকদের পিটুনী দিয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল হতে ৬ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। তবে মূল আসামী পালিয়ে যায়। ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পরলে হাজার হাজার মানুষ বাড়ির সামনে ভিড় করে এবং এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।
ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) অরবিন্দ সরকার বলেন, সন্দেহভাজন ৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। ঘটনাটি আরো তদন্ত করা হচ্ছে। মূল আসামী পালিয়ে গেছে। তবে তাকে গ্রেফতারের প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো যাবে।
এঘটনায় ছাত্রীর বাবা নসির আহম্মেদ কমল এবং স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি রবিউল ইসলাম ডাবলু থানায় পৃথক পৃথক অভিযোগ দায়ের করেছেন।