প্রধান মেনু

ঈশ্বরদীতে ৩ ব্যাংকারসহ নতুন আক্রান্ত ২৯

ঈশ্বরদীতে অগ্রণী ব্যাংকের আরো ৩ জনসহ নতুন করে ২৯ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। সোমবার দুপুরে প্রাপ্ত রিপোর্টের বরাত দিয়ে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আসমা খান এই তথ্য জানিয়েছেন।

অগ্রণী ব্যাংক ঈশ্বরদী শাখার আক্রান্তরা হলেন, সিনিয়র অফিসার ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ, সিকিউরিটি গার্ড শাহারুল ইসলাম ও রমিজ উদ্দিন। আক্রান্ত অবশিষ্ট ২৬ জনের বেশীরভাগই রয়েছে রূপপুর প্রকল্পের চাকুরী প্রার্থী। এই ২৬ জনের অবস্থান ও ঠিকানা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

গত ২৩ শে জুন এই ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার মোকলেছুর রহমান বাবুর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তিনি ১৫ই জুন করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেওয়ার পর ১৭ই জুন পর্যন্ত অফিস করেন। এরমধ্যে তিনি টাইফয়েডেও ভুগছিলেন। স্বাস্থ্য বিধি অনুযায়ী কোন ব্যক্তির সামান্য জ্বর হলেই আইসোলেশনে যাওয়ার নিয়ম রয়েছে।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব রায়হান জানান, নমুনা প্রদানের ১৫ তারিখ ধরে গত ২৩শে জুন ১৪ দিন হিসেব করে ২৮ তারিখ পর্যন্ত ওই ব্যাংক লকডাউন করা হয়েছিল।

বিকেল ৫টায় এ রিপোর্ট লেখার সময় করোনা আক্রান্তরা খবর পাওয়ার পরও ব্যাংকে কাজ করছিলেন। ব্যাংকের ম্যানেজার ফজলুর রহমানের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে আক্রান্তরা এখন ব্যাংকে কর্মরত রয়েছেন জানিয়ে বলেন, কিছুক্ষণ আগে আক্রান্তের খবর জেনেছি। ওদের মধ্যে জ্বর বা কোন লক্ষণ নেই। তাই ব্যাংকেই রয়েছে। প্রশাসনের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো বলে তিনি জানান। তবে ইউএনও ব্যাংকটি লকডাউন করা হবে বলে জানিয়েছেন।