প্রধান মেনু

করোনা উপসর্গ নিয়ে ঈশ্বরদীতে গৃহবধুর মৃত্যু

করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ঈশ্বরদীতে এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়া এই গৃহবধু ঈশ্বরদী বাজারের ব্যবসায়ী পান্না ষ্টোরের ছোট ভাই রানার স্ত্রী। দুই সন্তানের জননী এই গৃহবধুর নাম পিটু, বয়স আনুমানিক ৩০ বছর। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে সে মারা যায় বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। শহরের বাবুপাড়া এলাকায় তারা বসবাস করেন।
ঈশ্বরদী হাসপাতালের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আসমা খান জানান, ১০-১২ দিন ধরে সে কাশি, জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভুগছিলেন। গত ৩১ শে মার্চ তাকে হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসা দেয়া হয়। শুক্রবার শ্বাসকষ্ট বাড়ার বিষয়টি ফোনে জানালে তাকে রাজশাহী নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। বিশেষ এ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে শুক্রবারই রাজশাহী নিয়ে মেডিকেল কলেজে নিয়ে ভর্তি করা হয়। শনিবার এক্সরে ও রক্ত পরীক্ষা করার কথা ছিলো। মেডিকেল কলেজের করোনা ইউনিট হতে দুপুর আড়াইটার দিকে করোনা পরীক্ষার জন্য তার গলা হতে লালা সংগ্রহের পরই তিনি মারা যান। আগামীকাল এই রিপোর্ট পাওয়া যেতে পারে বলে তিনি জানিয়েছেন। মরদেহ রাজশাহী হতে ঈশ্বরদীতে আনার পর রাতে দাফন করা হয়েছে।
করোনা রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত উপজেলা প্রশাসন পরিবারের সদস্যদের কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।