প্রধান মেনু

গুরুদাসপুর দুলাভাইয়ের বাড়ীতে গৃহবধুর আত্মহত্যা দুই পরিবারে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য

গুরুদাসপুর (নাটোর ) প্রতিনিধি.
নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার খুবজিপুর গ্রামের আকলিমা খাতুন (১৩) নামে এক গৃহবধূ দুলাভাইয়ের বাড়ীত গিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে ওই একই গ্রামের দুলাভাই টিক্কা খানের বাড়ীতে ওই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। রোববার দুলাভাই টিক্কা খান আকলিমাকে জানায় তার বোন অসুস্থ্য।
বোনের অসুস্থ্যতার কারন দেখিয়ে শ্বাশুরীকে সাথে নিয়ে বোনের বাড়ীতে যায়। ওইদিন আকলিমা তার বোনের বাড়ীতে থেকে যায়। এরপর ওই ঘটনা ঘটে। রাতেই পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
দুলা ভাই টিক্কা খান ও বাবা আশরাফ আলী জানান, তিন মাস হলো সাগরের সাথে আকলিমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী সাগর হোসেন এবং শাশুড়ী আছিয়া বেগম মিলে নির্যাতন করতো। ওইদিন তাদের নির্যযাতন সইতে না পেরে সে দুলা ভাইয়ের বাড়িতে আশ্চয় নেয়। সেখানেই আকলিমা স্বামীর ওপর রাগে অভিমানে গলায় ফাঁস নেয়। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার খুবজিপুর বাজারে একটি পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান বোনের পরিবারের লোকজন। সেখানেই সে মারা যায়।
শ্বাশুরী আছিয়া বেগম জানান, রোববার আকলিমাকে জানায় তার বোন অসুস্থ্য। বোনের অসুস্থ্যতার কারন দেখিয়ে তাকে সাথে নিয়ে বোনের বাড়ীতে যায়। ওইদিন আকলিমা তার বোনের বাড়ীতে থাকতে চাইলে সেখানে তাকে রেখে আসে বলে তিনি দাবি করেন। নিহত আকলিমা পাশ্ববর্তী সিরাজগঞ্জ জেলার তারাশ উপজেলার কুসুম্বি গ্রামের আশরাফ আলীর মেয়ে। সাগর উপজেলার খুবজীপুর গ্রামের মৃৃত লিয়াকত আলীর ছেলে।
গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোজাহারুল ইসলাম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে