প্রধান মেনু

চলনবিলে নৌকা ডুবি ট্রাজিডি

চাটমোহরের সেই সুমন শাহনাজকে শুভসংঘের আর্থিক সহায়তা প্রদান

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি ঃ ২০১৮ সালের ৩১ শে আগষ্ট (শুক্রবার) পাবনার চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের চলনবিলে এক মর্মান্তিক নৌকা ডুবির ঘটনায় ৫ জনের প্রাণহানি ঘটে। এসময় স্থানীয় এক কিশোর সুমন ও গৃহিনী শাহনাজ পরভীন জীবনের ঝুকি নিয়ে ডিঙ্গি নৌকা নিয়ে ১৭ জন মানুষকে জীবন্ত উদ্ধার করে। তাদের এই সাহসিকতা প্রদর্শন ও অনেক মানুষের জীবন বাঁচানোর জন্য কালের কণ্ঠ ’শুভসংঘের’ উদ্যোগে তাদের সম্মাননা ক্রেস্ট ও আর্থিক ভাবে পুরস্কৃত করা হয়।
সোমবার দুপুরে পাবনার চাটমোহর উপজেলা অডিটরিয়ামে শুভ সংঘের আয়োজনে অনাড়ম্বর এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুভ সংঘের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে তাদের এই সম্মাননা জানানো হয়।

শুভসংঘের মাধ্যমে এমন সম্মাননা পেয়ে আবেগ আপ্লুত সুমন ও শাহনাজ বলেন, সেদিনের সেই ভয়াবহ দৃশ্যগুলো চোখের সামনে ভেসে উঠলেই চোখে জল চলে আসে। মানুষগুলো ডুবে মারা যেতে দেখে আমরা ঠিক থাকতে পারিনি। তাই জীবন বাজি রেখে তাদের উদ্ধারে প্রাণপন চেষ্টা করেছিলাম। তবে আজ কালের কণ্ঠ শুভসংঘ আমাদের ডেকে এনে যে সম্মান দিল সেটা আমরা ভাষায় প্রকাশ করতে পারবো না। আমরা এই সংগঠনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে শুভ সংঘ চাটমোহর উপজেলা শাখার সভাপতি তুষার ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে ও শুভ সংঘের পাবনা জেলা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা কালের কণ্ঠের পাবনা প্রতিনিধি আহম্মেদ-উল হক রানার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, চাটমোহর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার অসীম কুমার, চাটমোহর পৌরসভার মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলাল, সহকারী পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরীন, চাটমোহর প্রেসক্লাবের সভাপতি রকিবুর রহমান টুকুন, চাটমোহর টেকনিক্যাল এ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজম্যান্ট কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রহিম কালু, শুভ সংঘের কেন্দ্রীয় পরিচালক জাকারিয়া জামান, কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক সোহেল রানা স্বপ্ন।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে শুভ সংঘের চাটমোহর উপজেলা কমিটির সদস্যবৃন্দ, উপদেষ্টা মন্ডলী গণ, পাবনা জেলা ও ভাঙ্গুড়া উপজেলা শুভ সংঘের সদস্যবৃন্দ সহ স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্ববধানে ছিলেন, কালের কণ্ঠের চাটমোহর উপজেলা প্রতিনিধি ও শুভ সংঘের উপজেলা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল লতিফ রঞ্জু।