প্রধান মেনু

চাটমোহরে বড় শিংগা গ্রামে সংঘর্ষে আহত- ১৭

পাবনার চাটমোহর উপজেলার বিলচলন ইউনিয়নের বড় শিংগা গ্রামে জমি থেকে
রসুন উঠানোকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুরে ২ পক্ষের সংঘর্ষে ১৭ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন রড় শিংগা গ্রামের হেলালের ছেলে মামুন (২৮), মৃত জিন্নাত প্রামানিকের ছেলে দুলাল (৫৫), জালাল (৬০), ময়েজ প্রামানিকের ছেলে
ইব্রাহিম (৫৫), আফজাল প্রামানিক (৬২), নাছু প্রামানিকের ছেলে নাঈম (১৯), নাজমুল হোসেনের স্ত্রী আমেনা খাতুন (২৮), রইচ উদ্দিনের ছেলে আবদুল্লা (২০), মইজ উদ্দিনের ছেলে রফিক(৬৫), আফছার আলীর ছেলে মোস্তফা (৫০), আবজাল প্রামানিকের ছেলে জয়নাল আবেদিন (৩০), আয়নাল (৩৫), আজাহার আলীর ছেলে শরিফুল ইসলাম (৪৫), নওশের আলীর ছেলে পিপুল(১৯), জালালের ছেলে আনোয়ার (৩৫), তুষার (২০) ও নাজিমুদ্দিনের ছেলে নওশের আলী (৪৮)। আহতদের চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত দুলাল, জালাল ও মামুনকে পাবনা
মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়, ৩/৪ দিন পূর্বে হেলালের জমিতে জয়নালের ছেলে রসুন উঠাতে গেলে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এসময় উভয় পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করে। থানায় শালিশ বৈঠকের মাধ্যমে বিষয়টি সমাধান হওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। শনিবার বোঁথর ঘাটে হেলালের ছেলে মামুনের
সাথে আয়নালের বাকবিতন্ডা হয়। পরে উভয় পক্ষ একে অপরের সাথে সংঘর্ষে জরিয়ে
পরে। পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেখ নাছির উদ্দিন জানায়, পরিবেশ এখন
শান্ত আছে। অভিযোগ তদন্ত চলছে।