প্রধান মেনু

চাটমোহর-পার্শ্বডাঙ্গা সড়কের বেহাল অবস্থা, জনদূর্ভোগ চরমে

চাটমোহর-পার্শ্বডাঙ্গা জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি এখন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। উপজেলা সদরের সাথে পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়নের অন্তত ২০ থেকে ২৫ টি গ্রামের জনগণের চাটমোহর উপজেলা সদরে প্রবেশ করতে ভীষণভাবে কষ্টদায়ক হয়ে গেছে। এ সকল গ্রামবাসীর যোগাযোগের প্রধান সড়ক এটি। দীর্ঘদিন ধরেই এই সড়কে সাধারণ মানুষ ও সকল ধরণের যানবাহন চরম ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। সড়কটির নির্মাণ কাজ শুরু হলেও, তা বন্ধ রয়েছে।

চাটমোহর পৌরসভা সদরে পৌছাতে রাস্তাটির জাগায় জাগায় খন্ড খন্ড হয়ে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে গেছে। এখানে প্রতিনিয়ত ঘটছে দূর্ঘটনা এবং কোনো ধরনের যানবাহন এখান দিয়ে প্রবেশ করতে পারছে না। কোন মুমূর্ষু রোগী নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্সে যাওয়ার জন্য এম্বুলেন্স অথবা অটো গাড়ি এখান দিয়ে প্রবেশ করতে পারে না। কৃষকের উৎপাদিত ফসল পরিবহনে নিয়ে শহরে বিক্রি করা খুবই দুস্কর হয়ে গেছে। কৃষক প্রতিদিন এই রাস্তা দিয়ে পৌরসভার বাজার গুলোতে শাকসবজি নিয়ে যায়। তাদের পরিবহন সমস্যার কারণে প্রতিনিয়ত লোকসান গুনতে হচ্ছে। বর্ষায় ভাঙ্গাচোরা অংশে পানি জমে সড়কটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সম্প্রতি এই রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু হয়। সড়কের ইট তুলে ফেলা হয়। বালু ও খোয়াও কিছু অংশে ফেলা হয়।
কিন্তু অদৃশ্য কারণে এখন সড়ক নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। বেহাল অবস্থা এখন এই সড়কের। ফলে এই রাস্তায় চলাচল করতে যেয়ে সাধারণ মানুষকে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

চাটমোহর উপজেলা প্রকৌশলী রাজু আহমেদ জানান, কী কারণে ঠিকাদার সড়কটির নির্মাণ কাজ বন্ধ রেখেছেন, তা আমি বলতে পারছিনা । বন্ধ রাখার কারণ আমার জানা নেই।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আজাহার আলী সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, মাঝে কাজ হচ্ছিল। কিন্তু এখন বন্ধ রয়েছে। জানিনা কেন কাজ বন্ধ আছে।

এলাকাবাসী দ্রত সড়কটির নির্মাণ কাজ শেষ করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ¦ মো. মকবুল হোসেনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।