প্রধান মেনু

ইউএনও-র নিকট লিখিত অভিযোগ

জামাত নেতাকে বিদ্যালয়ের সভাপতি

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় ঐতিহ্যবাহী অষ্টমনিষা উচ্চ বিদ্যালয়ে গোপনে ম্যানেজিং কমিটির গঠন ও জামাত নেতাকে সভাপতি করায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে এলাকবাসী। অভিযোগ পত্রে ঐ বিদ্যালয়ের ক্যাচমেন্ট এরিয়ার শতাধিক অভিভাবকবৃন্দ স্বাক্ষর করেছে। স্বাক্ষরিত অভিযোগ পত্রটি গত সোমবারে (১৬ সেপ্টেম্বর) ইউএনওর নিকট জমা দেন। পাশাপাশি অনুলিপি দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়,মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতর,জেলা শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবরে।
 
অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, পাবনা জেলার ভাঙ্গুড়া উপজেলাধীন অষ্টমনিষা উচ্চ বিদ্যালয়ের অত্র উপজেলার কুখ্যাত জামাত নেতা ও বিভিন্ন মামলার আসামী ও প্রধান

মন্ত্রীকে কুটুক্তিসহ বিভিন্ন সময়ে রাষ্ট্রবিরোধী অপরাধে আইন শৃংক্সখলা বাহিনী দ্বারা ধুষ্ট হয়ে হাজতবাস করেছেন। বর্তমানে ঐ মামলা বিচারাধীন রয়েছে যার নং জি আর ১৩৮/১৮(ভাঙ্গুড়া) ২৩/১২/২০১৮। সেই কুখ্যাত জামাত নেতা মোঃ মোজাম্মেল হক মোজাম, পিতা মৃত. ফয়েজ উদ্দীন প্রাং অষ্টমনিষা ভাঙ্গুড়া পাবনাকে ষড়যন্ত্র ও কারসাজির মাধ্যমে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নিযুক্ত করার ক্ষেত্রে তারই আপন ভগ্নে অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আনছার আলী কমিটি গঠনের সকল নিয়ম নীতি অবজ্ঞা করেছেন । সে কারণে ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবক গণের অধিকার ক্ষুন্ন হয়েছে।
 
অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয় যে, জামাত নেতা ও প্রধান শিক্ষক তার একে অপরের সর্ম্পকে আপন মামা-ভাগনে। উভয়ে স্থানীয় কিছু আওয়ামী পন্থী আত্মীয় স্বজনের যোগসাজসে রাতের আধাঁরে ঘরে বসে লোক চক্ষুর অন্তরালে কোনো রকমের নির্বাচন ছাড়াই তাদের পছন্দমত শিক্ষক প্রতিনিধি ও অভিভাবক সদস্য নিয়ে পকেট কমিটি গঠন করেছেন। এই কমিটি চলমান থাকলে বিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশে নষ্ট হবে এবং আর্থিক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। যে কারণে এলাকাবাসী ও অভিভাবকগণের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে।
 
লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা স্বীকার করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ আশরাফুজ্জামান বলেন, অভিযোগের বিষয়ে অধিকতর তদন্ত করে পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।