প্রধান মেনু

নাটোরের বড়াইগ্রামে ট্রাক চালকের আত্মহত্যা

নাটোর প্রতিনিধিঃ নাটোরের বড়াইগ্রামে করোনার কারণে কাজ হারিয়ে সাংসারিক অভাবে স্বামী স্ত্রীর কলহে আত্মহত্যা করেছেন জুয়েল রানা (২৪) নামে এক ট্রাক চালক। শনিবার সকালে উপজেলার জোয়াড়ী ইউনিয়নের নওদাজোয়াড়ী গ্রামের নিজ ঘর থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। জুয়েল রানা ওই গ্রামের দুলাল হোসেন প্রামাণিকের ছেলে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য জমসেদ আলী নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে বলেন, জুয়েল রানা পেশায় একজন ট্রাক চালক। করোনা মহামারীর সংকট কালে আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন। পরিবারিক দৈনন্দিন চাহিদা পুরণ করতে না পারায় প্রায়ই সংসারে অশান্তি কলহ লেগে থাকতো। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকালে পুনরায় এ নিয়ে স্ত্রীর সাথে ঝগড়া হলে জুয়েল রানা নিজঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেয়। এরপর ঘরের তীরের সাথে গলার ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করে। পরে বাড়ির লোকজন বুঝতে পেরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলিপ কুমার দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনা তদন্ত করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।