প্রধান মেনু

নাটোরে আগাম বেতন দিয়ে কর্মচারীদের ১৫ দিনের ছুটি দিলেন সমবায় সমিতির নির্বাহী পরিচালক

নাটোর প্রতিনিধি
নাটোরে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে আগাম সতর্কতার অংশ হিসেবে ” সম্প্রীতি সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমবায় সমিতি” ২০ জন স্টাফকে বেতন দিয়ে ছুটি দেয়া হয়েছে। শহরের কানাইখালী এলাকার সমবায় সমিতির সব কর্মীকে ১৫ দিনের ছুটি দিয়ে দিয়ে প্রতিষ্টানটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে । আপদকালীন সময়ে যারা বাসায় অবস্থান করবে তাদের পুরস্কার হিসেবে প্রতিদিন জন্য সম্মানী ভাতা প্রদানের ঘোষণা দেন । এছাড়া গত ১৮ মার্চ থেকে সমিতির চার শতাধিক সদস্যের কিস্তি বন্ধ ঘোষণা দেন । যতদিন করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হবে সদস্যদের কিস্তি দিতে হবেনা ।বরং আপদকালীন সময়ে সমিতির সদস্যদের সকল প্রকার সহযোগিতা করবে প্রতিষ্ঠানটি । মঙ্গলবার দুপুরে ” সম্প্রীতি সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমবায় সমিতি” র নির্বাহী পরিচালক আসাদুজ্জান টুটুল এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

আসাদুজ্জান টুটুল বলেন, করোনাভাইরাসের বিপর্যয় ঠেকাতে আমার প্রতিষ্ঠানের সবাইকে প্রাথমিকভাবে ১৫ দিনের বেতনসহ ছুটি দিয়েছি। সেই সঙ্গে তাদের কর্মী এবং চারশ সদস্যের প্রত্যেককে সচতনামূলক লিফলেট,হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক দেয়া হয়েছে। দেশের অবস্থা বিবেচনা করে পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠানটি খোলার সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। প্রতিষ্টানটি যতদিনই বন্ধ থাকুক সটার্ফদের বেতন ভাতা নিয়মিত দেওয়া হবে ।

প্রতিষ্ঠানটির কর্মী তৃষা সাহা বলেন.করোনা সংকট চলাকালে নাটোরে এই প্রথম কোন ক্ষুদ্র সমবায় সমিতি সদস্যদের কিস্তি বন্ধ করেছে এবং ষ্টার্ফদের আগাম একমাসের বেতন সহ পর্যাপ্ত মাস্ক ও স্যানিটাইজার দিয়েছেন । আমার জানামতে নাটোরে কর্মরত দেশের বড় বড় এনজিও অগ্রিম বেতন তো দূরের কথা । কর্মীদের দিয়ে কিস্তি আদায় করলেও তাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থায় গ্রহণ করেনি ।

সমিতির সদস্য শহরের ষ্টেশন বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বকুল তালুকদার ও হেলাল উদ্দীন জানান,গত ১৮ মার্চে সকালে সম্প্রীতি সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমবায় সমিতি কর্মীরা প্রতিটি সদস্যকে মাস্ক,স্যানিটাইজার এবং লিফলেট দিয়ে পরিস্থিত স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত কিস্তি দিতে হবেনা বলে জানান । রোববার নাটোরের ডিসি কিস্তির বন্ধের নির্দেশ দিলেও এনজিও এবং কথিত সমবায় সমিতিগুলো আজোও কিস্তি আদায় করছে ।।

নাটোরের প্রবীন রাজনীতিবিদ ম›জুর মোর্শেদ লুলু বলেন,দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে সবারই এমন উদ্যোগ নেয়া জরুরি প্রয়োজন ।” সম্প্রীতি সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমবায় সমিতি নির্বাহী পরিচালক আসাদুজ্জামান টুটুলের এ মহতী উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান । দেশের সকল এনজিও এবং সমবায় সমিতির উচিত কিস্তি বন্ধ করে সদস্যদের পাশে দাঁড়ানো ।

সম্প্রীতি সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমবায় সমিতি নির্বাহী পরিচালক টুটুল বলেন, প্রচারের জন্য নয় মূলত সমাজের একজন সচেতন মানুষ হিসেবে সামাজিক দায়বদ্ধতা আর মনোযন্ত্রণার আপন তাগিদে করেছি । সবারই দেশের ক্রান্তি লগ্নে সবাই কে মানবতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে ।তিনি প্রবাসীসহ দেশের সবাইকে সতর্ক থাকার এবং বার বার হাত মুখ ধুয়ে পরিষ্কার রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন