প্রধান মেনু

নাটোরে ডিবি পুলিশের এক বছরের সাফল্য নাটোরে বছর জুড়ে কমেছে অপরাধ

নাটোর প্রতিনিধি
আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সাফল্যের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে চলেছে নাটোর ডিবি পুলিশ । জটিল ও কঠিন মামলার জট খুলে রহস্য উম্মোচন করে দীর্ঘ মেয়াদী মামলাকে করেছে সংক্ষিপ্ত। ইয়াবা, ফেন্সিডিল, গাঁজা, হেরোইন,অস্ত্র সহ মাদক উদ্ধার ও ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে। একের পর এক সাঁড়াশি অভিযানে লন্ডভন্ড করে দিয়েছে মাদকের আস্থানা।

সিরিয়াল কিলার বাবুকে গ্রেফতার, জেলার আলোচিত হত্যার আসামীদের গ্রেফতার,অপহৃত উদ্ধার, বিদেশী টাকা, চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধারসহ রয়েছে নানা সাফল্য। নাটোরে এক বছরে ডিবি পুলিশের এমন সাফল্যে তাদের সাধুবাদ জানিয়েছে শহরবাসী। তাইতো অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ নানা সময় পুলিশ বিভাগ পুরস্কৃত করেছে ।ফলে চৌকশ কর্মকর্তাদের হাত ধরে এগিয়ে চলেছে ডিবি পুলিশ।ডিবি পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের জানুয়ারী থেকে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন অপরাধের জন্য ইতোমধ্যে ৬৮১ জন অপরাধীকে গ্রেপ্তার এবং বিভিন্ন ধারায় মোট ৩৭২টি মামলা দায়ের স¤পন্ন হয়েছে। নাটোর জেলায় তরুণ যুব সমাজকে ধ্বংস করতে দেশের বিভিন্ন সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে আগতরা এসে বিভিন্ন সময় মাদকের ঘাটি তৈরীর
চেষ্টা করেছে। তাছাড়াও আন্তঃজেলা ডাকাত, ছিনতাইকারী, প্রতারকসহ বিভিন্ন অপরাধ দমনে নাটোরে পুলিশের পাশাপাশি ডিবি পুলিশও সর্বক্ষণ তৎপর রয়েছে।
এছাড়াও মাদক বিরোধী এবং জঙ্গিবাদ বিরোধী গণসচেতনতা তৈরী করেও সফল হয়েছে ডিবি পুলিশ। নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে প্রায় প্রতিদিনই উদ্ধার হচ্ছে বিভিন্ন প্রকার মাদকদ্রব্য এবং আটক হচ্ছে মাদক ব্যবসায়ী, পাঁচারকারী এবং মাদকসেবী যা অতীতের রেকর্ড ছাড়িয়েছে। ডিবি পুলিশের পরিসংখ্যান সূত্রে আরোও জানা গছে, পুলিশের অন্যান্য ইউনিটের তুলনায় বহুলাংশে এগিয়ে নাটোর ডিবি পুলিশ।

গত ১ বছর তাদের প্রশংসনীয় কার্যক্রম সাফল্যমন্ডিত করে তুলেছে ।নাটোরে ১০ নারীকে হত্যাকারী সিরিয়াল কিলার আনোয়ার ওরফে আনার বাবু ওরফে কালুকে গ্রেফতার,অপহরণের চারদিনের মধ্যে অপহৃত কিশোর উদ্ধার, , মাদক বহন ও চোরাই মোটর সাইকেল ৩২টি, ৪০ কেজি গাঁজা, ১৪০০ গ্রাম হেরোইন, ৭৪৭ বোতল ফেন্সিডিল, ১৭৬৫৯ পিস ইয়াবা, ৫০টি মোবাইলসহ নগদ ৫ লক্ষ ৬৪ হাজার ৭২৫ টাকা উদ্ধার করেছে। আইনের আওতায় আনা হয়েছে বহু শীর্ষস্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী, পলাতক আসামী, আন্তঃজেলা ডাকাত দল, ছিনতাইচক্রের সদস্য সহ বিভিন্ন অপরাধী চক্রসহ বহু অপরাধীকে।
সর্বশেষ সাফল্য হলো, গত ২ জানুয়ারী নাটোরের বনবেলঘড়িয়া বাইপাসে গ্রামীণ ট্রাভেলর্সের যাত্রীর পায়ের স্যান্ডেল থেকে ৮০ হাজার ইউএসএ ডলার সহ দুইজনকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ।
এ ব্যাপারে নাটোরের ডিবি পুলিশের এসআই মিঠুন সরকার বলেন, শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট যেমন আÍতৃপ্তির, তেমনি কর্ম¯পৃহা বাড়ানোর তাগিদপত্রও বটে। নাটোরের সুযোগ্য পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা আমাদের কাজের মূল অনুপ্রেরণা। তাঁর চৌকস নির্দেশনায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সাফল্যের এই ধারাবাহিকতা বজায় রেখেই কাজ করে যাবে ডিবি পুলিশ।

অফিসার ইনচাজ সৈকত হাসান বলেন, পুলিশের ডিবি নতুন একটি ইউনিট। মোট ২০ জন জনবল নিয়ে ডিবি পুলিশ কাজ করছে। এখানে অনেক সীমাবদ্ধতা রয়েছে। তার পরেও আন্তরিকতার সাথে আমরা কাজ করছি। অনেক অপরাধীকে গ্রেপ্তার করেছি। মাদকসহ বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার করেছি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সবর্দা ডিবি পুলিশ নিজস্ব গতিতে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। যা অব্যাহত থাকবে।
মানবাধিকার কর্মী ও আইনজীবী অ্যাডভোকেট মিলন রহমান বলেন, তুলনামূলক অপরাধ প্রবণতা হ্রাসকরণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দৃশ্যমান ভূমিকা রেখেছে চলতি বছর। এ ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে পুলিশের পাশাপাশি ব্যক্তি ও পারিবারিক পর্যায়ে সচেতনতা বৃদ্ধির বিকল্প নেই।

জেলা পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, বিগত বছরগুলোর তুলনায় চলতি বছর নাটোরে হত্যাকাণ্ডের সংখ্যা কম ছিল। পাশাপাশি প্রতিটি অপরাধকে গুরুত্ব দেওয়ায় কমেছে অন্যান্য অপরাধসমূহও। অধিকাংশ হত্যারহস্য উন্মোচন করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।