প্রধান মেনু

নাটোরে নবনির্মিত অনিমা চৌধুরি অডিটোরিয়ামের পরিচিতি ফলক ভুল ভরা, স্থানীয়দের ক্ষোভ

নাটোর প্রতিনিধি
নাটোরে নবনির্মিত উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা অনিমা চৌধুরি অডিটোরিয়ামের সামনে অনিমা চৌধুরীর পরিচিতি ফলক ভুলে ভরা। এমন ভুল কোনোভাবেই কাম্য নয় বলে মনে করেন স্থানীয়রা। তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, একজন মানুষের পরিচয় সবচেয়ে বড় মূল্যবান। সেখানে যদি ভুল তথ্য দেয়া হয় তাহলে তার থেকে বড় কোনো অপরাধ হয় না। তাই দ্রুত তা সংশোধনের দাবি জানান সচেতন সমাজের প্রতিনিধিরা।
নাম ফলকে দেখা যায়, অনিমা চৌধুরীর পিতার নাম লেখা হয়েছে- সুধার চন্দ্র লাহিড়ী। অথচ তার পিতার নাম -সুধীর ভট্টাচার্য্য। আবার নাটোরের আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক এমপি বাবু শংকর গোবিন্দ চৌধুরীর পিতার নাম জ্ঞানদা গোবিন্দ চৌধুরীর পরিবর্তে জানদা গোবিন্দ চৌধুরী লেখা হয়েছে। এছাড়া আমৃত্যু শব্দের বানান ভুল লেখা রয়েছে। এছাড়া অন্যান্য ভুলগুলো দ্রুত সংশোধন করে তা পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।
প্রবীণ শিক্ষক সুধাংশু কুমার সরকার জানান, শিশুরা কমল, তারা নতুন যা কিছু দেখে তাই শিখতে পছন্দ করে। তাদের মস্তিষ্কে একবার যেটা প্রোথিত হয় সেটা সহজে দূর হবার নয়। আর এই পথে প্রতিদিনই শত শত শিশু স্কুল থেকে বাড়ির পথে যাতায়াত করে। তাদের অনেককে আমি দাঁড়িয়ে থেকে এটা পড়তে দেখেছি প্রায় -ই। দ্রুত এটি পরিবর্তন না করলে শিশুরা বিভ্রান্ত হবে।তিনি এটির দ্রুত পরিবর্তন দাবি করেন।
নাটোর ইউনাইটেড প্রেসক্লাবের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নবিউর রহমান পিপলু জানান, একটি গুরুত্বপূর্ণ স্কুলের সামনে ভুল পরিচিতি ফলক নতুন শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত করবে। তারা ভুল শিখবে। তাছাড়া মানুষের পরিচিতি তাও একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির পরিচয় দিতে গিয়ে এমন কাণ্ডজ্ঞানহীন এর মত ভুল তথ্য প্রদান করা হয় তার থেকে কষ্টের আর হয়না। দ্রুত এটি সংশোধন অথবা পরিবর্তনের দাবি জানান তিনি।
নাটোরের মেয়র ও অনিমা চৌধুরীর মেয়ে এবং জ্ঞানদা গোবিন্দ চৌধুরীর নাতনি উমা চৌধুরী জলি জানান, নামফলক লাগানোর পর পরেই তিনি এটি পরিবর্তনের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানালেও আজ পর্যন্ত তা পরিবর্তন করা হয়নি। দ্রুত সেটি পরিবর্তনের দাবি জানান।