প্রধান মেনু

পাবনায় কাঁচা মরিচের ঝাঁজে দিশেহারা ক্রেতা

পাবনায় হাট-বাজারে কাঁচা মরিচের দাম মাত্রাতিরিক্ত বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে প্রতিকেজি কাঁচা মরিচ ১৩০থেকে ১৪০টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আলু, পটল এবং বেগুনসহ অন্যান্য সবজির দাম ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে থাকলেও কাঁচা মরিচের দাম ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। বিশেষ করে বর্তমান বাজারে নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষের পক্ষে কাঁচা মরিচ কেনা অসম্ভব হয়ে পড়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ৮/১০ দিন আগেও পাবনা শহরের বাজারসহ জেলার অধিকাংশ হাট-বাজারে প্রতিকেজি কাঁচা মরিচ বিক্রি হয়েছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা দরে। কিন্তু মাত্র ৮/১০ দিনের ব্যবধানে বর্তমানে প্রতিকেজি কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৩০থেকে ১৪০টাকা দরে। এতে নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষের পক্ষে কাঁচা মরিচ কেনা কষ্টকর হয়ে পড়েছে। শহরের বড় বাজারের এক ক্রেতা আব্দুল লতিফ বলেন, রবিবার কাঁচা মরিচ কিনতে বাজারে আইছিলাম। কিন্তু দাম বেশি জন্যি কিনবের পারি নাই। পরে কাঁচা মরিচের পরিবর্তে শুকনে মরিচ কিনছি। আতাইকুলা হাটে তৈকুপী গ্রামের দিনমজুর শুকুর আলী বলেন, প্রতিকেজি কাঁচা মরিচ ৫০থেকে ৬০টাকা দরে বিক্রি হলি আমারে পক্ষে কেনা সহজ হয়। কিন্তু বর্তমান বাজারে আমারে মতো গরীব মানুষের পক্ষে কাঁচা মরিচ কিনা সম্ভব না।
এ ব্যাপারে বড় বাজারের সবজি ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নান বলেন, অতি বৃষ্টি ও বর্ষায় মরিচের ক্ষেত নষ্ট হওয়ায় কাঁচা মরিচের আমদানি কমে গেছে। সেকারণে দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে ক্রেতারা অভিযোগ করে বলছেন হাট-বাজারে কাঁচা মরিচের যথেষ্ট আমদানি থাকা সত্তে¡ও ব্যবসায়ীরা অধিক মুনাফা লাভের আশায় দাম বাড়িয়ে বিক্রি করছে।