প্রধান মেনু

পাবনায় “বঙ্গবন্ধু গন্থাগার” উদ্বোধন

রফিকুল ইসলাম সুইট : ঐতিহ্যবাহী পাবনা বার সিমিতির নতুন ভবনে “বঙ্গবন্ধু গ্রন্থাগার” এর শুভ উদ্বোধন হয়েছে । সোমবার দপুরে পাবনা জেলা আইনজীবী বার সমিতির চতুর্থ তলাতে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে পাবনা আইনজীবী বার সমিতির উদ্যেগে এই গ্রন্থারটির উদ্বোধন করা হয়। অর্ধকোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত এই গ্রন্থারটিতে ত্রিশ লক্ষ টাকা আর্থিক সহযোগিতা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে। বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ ও পাবনা জেলা বার সমিতির সকল আইনজীবীরা এই কাজে আর্থিক ভাবে সহযোগিতা প্রদান করছেন।
“বঙ্গবন্ধু গ্রন্থারগার” উদ্বোধন করেন পাবনা-১ আসনের সংসদ সদস্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় সস্পর্কিত কমিটির সভাপতি পাবনা আইনজীবী বার সমিতির সাবেক সম্পাদক অ্যাড, শামসুল হক টুকু।
পাবনা বার সমিতির সভাতি আমিনুল ইসলাম পটল এর সভাপতিত্বে এবং আব্দুল আহাদ বাবু এর পরিচালনায় উদ্বোধন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পাবনা সদর আসনের সাংসদ সদস্য পরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্যা গোলাম ফারুক প্রিন্স, উপস্থিত ছিলেন- প্রবীন আইনজীতি গোলাম হাসনায়েন, জহির আলী কাদেরী, পিপি আব্দুস সামাদ রতন, জিপি হোসেন শহীদ সরোয়ারদী, সম্পাদক সাজ্জাদ ইকবাল লিটন, বার সমিতির সাবেক সভাপতি শাহ আলম, লিয়াকত তালুকদার, শাহজাহান মন্ডল, শাহবুদ্দিন সবুজ, ইতি হোসেন স্বপ্না, আহসান হাবিব হাসান, তৌফিক ইমাম খান, খন্দকার রকিব, আরেফা খানম শেফালি, মীর রকিব আলম রিজন প্রমুখ।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি গোলাম ফারুক প্রিন্স বলেন, অইন পেশায় যারা এই পাবনা জেলাতে কাজ করছে তাদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো একটি আধুনিক গ্রন্থার স্থাপনের। আমাদের বঙ্গবন্ধু অইনজীবী পরিষদের নেতারা এই নতুন ভবন নির্মানের জন্য চেষ্টা করে সফল হয়েছে। এই বারের আইনজীরা সকলের মিলে উদ্যোগ গ্রহণ করে একমত হয়ে বঙ্গবন্ধুর নামে গ্রন্থাগার স্থাপন করছেন এটি সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই। তার আর্থিক সহযোগিতা না পেলে এই কাজ সম্পাদক কষ্টকর হতো। তাই সকলে মিলে শেখ হাসিনার ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ বির্নিমানে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
অনুষ্ঠানের উদ্বোধক সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অ্যাড,সুল হক টুকু বলেন, এই বারের নবনির্মিত ভবনে বঙ্গবন্ধুর নামে আধুনিক গ্রন্থার স্থাপন করা হলো এটি সত্যিই দারুন একটি কাজ। আমি মনে করি এই লাইব্রেরীর মধ্যদিয়ে আইন পেশার সাথে যরা সংশ্লিষ্ঠ রয়েছে তাদের দারুন উপকার হবে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন জ্ঞান পিপাসু মানুষ তার সাহসী নেত্রীত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশকে আজ অন্য পিছিয়ে পড়া রাষ্ট্র অনুকরণ করছে। আইনের প্রতি প্রধানমন্ত্রীরযে শ্রদ্ধা সেটি তিনি তার অনুদানের মধ্যদিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন। তাই সকলকে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্য কাজ করার আহবান জানান।

লাইব্রেরী বিষয়ে কথা হয় পাবনা আইনজীবী বার সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল আহাদ বাবু তিনি বলেন, এই গ্রন্থাগারে পৃথবীর সকল দেশের সংবিধান সংগ্রেহের একটি উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। ইতমধ্যে বেশে কিছৃ দেশের সংবিধান লাইব্রেরীতে সংযোজন হয়েছে। আর অনেক দেশের সংবিধান সংগ্রহের জন্য চেষ্টা করছে সংশ্লিষ্ঠ আইনজীবীরা। শুধু আইন বিষয়ের উপর বই নয় এই গ্রন্থাগারে পৃথিবীর বিখ্যাত সকল কবি সাহিত্যিক মুনীষী এবং পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কোরান যত ভাষাতে মুদ্রিত হয়েছে সেই সকল গ্রন্থ স্থানপাবে এই গ্রন্থ্গাারে। এ্ছাড়া বঙ্গবন্ধু উপরে যত ধরনরে গবেষনা ও মুক্তিযুদ্ধের বই রয়েছে সকল সংগ্রহ করা হবে।

প্রায় অর্ধশত আইজীবীর বইয়ে অনুদান ও প্রায় পাঁচ হাজার অইন বিষয়ে বই নিয়ে যাত্রা শুরু করলো বঙ্গবন্ধু নামে করা গ্রন্থাগারটি। প্রবীন এবং নবীন আইনজীবী পেশায় নিয়োজিত পাবনা বার সমিতির সকল সদস্য এই গ্রন্থাগার থেকে আইন সংশ্লিষ্ঠ সকল ধরনের বই পাওয়াযারে বলে জানা গেছে।