প্রধান মেনু

২৪ কোটি টাকা মুল্যের অবিক্রিত চিনি গুদামে মজুদ

পাবনায় সুগার মিলের শ্রমিক কর্মচারীদের বকেয়া বেতন-ভাতা প্রাপ্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ

শফিক আল কামাল (পাবনা) ॥ পাবনা দাশুড়িয়া সুগার মিলের শ্রমিক কর্মচারিদের ৬ মাসের বেতন-ভাতাসহ আঁখ চাষিদের ১১ কোটি টাকা বকেয়ার পরিশোধের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে শ্রমিক কর্মচারী ও আঁখচাষীরা। বুধবার (২৬’ আগস্ট) সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে দুপুর পর্যন্ত সুগার মিলের প্রধান ফটকে ও অফিস কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন শ্রমিকরা। দফায় দফায় শ্রমিকরা মিছিল করে অফিস কার্যালয় ঘেরাও করে। বিক্ষোভ মিছিল শেষে অফিস কার্যালয়ের সামনে পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন শ্রমিক-কর্মচারি সংগঠনের সভাপতি সাজেদুল ইসলাম শাহীন, সহ-সভাপতি জাহিদুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক আশরাফুজ্জামান উজ¦ল, দাশুড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. বকুল সরদার সাংগঠনিক সম্পাদক এমদাদ হোসেন, দপ্তর সম্পাদক মাসুম হোসেন ও মিল শ্রমিক রহিমা খাতুন প্রমুখ। বক্তারা বলেন পাবনা সুগার মিলে বর্তমানে নিয়মিত শ্রমিক রয়েছে ৪শ জন, মৌসুমি শ্রমিক রয়েছে ২শ জন এবং চুক্তিভিত্তিক শ্রমিক রয়েছে প্রায় ১শ জন। শ্রমিক ও কর্মচারিরা টানা ৬ মাস বেতন-ভাতা পাচ্ছেন না। শ্রমিক-কর্মচারিদের বকেয়া এসে দাঁড়িয়েছে ৮ কোটি টাকায়। আর যারা এই মিলের আঁখ চাষি রয়েছে তাদের পাওনা আরো ৩ কোটি টাকা। বকেয়া বেতন ও ভাতা না পেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে এই চিনি মিলের শ্রমিক কর্মচারীরা। আগামি ৭ দিনের মধ্যে বকেয়া পাওনা পরিশোধ করা না হলে বৃহত্তর আন্দোলনসহ কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার ঘোষণা দেন শ্রমিক নেতারা।

পাবনা সুগার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফ উদ্দিন আহম্মেদ’র নিকট এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, ২৪ কোটি টাকার সম মূল্যের ৪ হাজার টন চিনি অবিক্রিত অবস্থায় গুদামজাত হয়ে আছে। এই গুদামজাতকৃত চিনি বিক্রি হয়ে গেলে শ্রমিকদের বকেয়ার টাকা পরিশোধ করা সম্ভব হতো। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে শ্রমিকদের সমস্যা সমাধানের বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। আশা করি কর্তৃপক্ষ যতদ্রুত সম্ভব এ বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন করবেন।