প্রধান মেনু

প্রয়াত ভুমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফের চেহলাম উপলক্ষে ঈদ সামগ্রী উপহার বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার,ঈশ^রদী ॥ পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি,প্রয়াত
ভুমিমন্ত্রী ভাষা সৈনিক শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর চেহলাম উপলক্ষে ঈশ^রদী ও
আটঘরিয়ার বিভিন্ন স্থানে ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত
রয়েছে। তারই অংশ হিসেবে রবিবার দুপুরে ১ নং ওয়ার্ডের পিয়ারপুর মোড় ও সাড়া
গোপালপুর স্কুল মাঠে এবং বিকে ৪ নং ওয়ার্ড এলাকার পনের’শ পরিবারের মধ্যে
খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ঈশ^রদী উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের
সভানেত্রী কামরুন্নাহার শরীফের ব্যক্তিগত অর্থে ও সার্বিক সহযোগিতায় এসব
খাদ্য বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। খাদ্য বিতরণ করেন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও
আওয়ামীলীগের কেন্দ্রিয় শিল্প ও বাণিজ্য উপকমিটির সাবেক সদস্য সাকিবুর
রহমান শরীফ কনক । এ সময় যুবলীগ সেক্রেটারী আরিফুল ইসলাম লিটন তোফাইল
আহমেদ রনি,ছাত্রলীগ নেতা আরমান হোসেন,সুমনদাস,খোকন আলী,ফকরুল
ইসলাম মনি,সিরাজুল ইসলামসহ আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা উপস্থিত
ছিলেন। বিতরণের আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে কনক বলেন,আমার পিতার আতœার শান্তির
জন্য দোয়া চেয়ে বক্তব্য শুরু করেন। তিনি বলেন,সরকারী কোন খাদ্য বিতরণ করা
হচ্ছেনা। এগুলো সম্পূর্ণ আমার মায়ের ব্যক্তিগত অনুদান। সরকারী অনুদাননা।
বাবার কুলখানীর জন্য এই খাদ্য উপহার দেওয়া হচ্ছে। তিনি দেশ,জাতি ও
প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া কামনা করে বঙ্গবন্ধুর বিদেহী আতœার মাগফেরাত
কামনাও করেন। একই দিন কনকের বড় ভাই ঈশ^রদী উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য
গালিবুর রহমান শরীফ আটঘরিয়ার দাস ও কামার শিল্পী সম্প্রদায়ের জন্য ঈদ সামগ্রী
বিতরণ করেন।
এর আগে বুধবার সকালে কনক ঈশ^রদী সরকারী কলেজ মাঠসহ তিন ওয়ার্ড এলাকায়
এক হাজার পঁঞ্চাশ পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন । এসব খাদ্য বিতরণ
কালে কনক বলেন, আমার আব্বু ঈশ^রদী-আটঘরিয়ার গরীব মানুষের জন্য সাধ্যমত
সহযোগিতা করে গেছেন। আমরাও সেই সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে চাই।
আমার বাবার মৃত্যুর পর করোনা দূর্যোগের কারণে চেহলাম করতে পারিনাই। তাই
তার বিদেহী আতœার শান্তি কামনায় আমার মা কামরুন্নাহার শরীফের সার্বিক
সহযোগিতায় ও ব্যক্তিগত অর্থে আমরা এ পর্যন্ত ঈশ^রদী-আটঘরিয়ার বিভিন্ন
এলাকায় প্রায় সাড়ে উনিশ হাজার পরিবারে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার বিতরণ করা
অব্যাহত রেখেছি।