প্রধান মেনু

ফরিদপুরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে প্রাণ গেল যুবকের

পাবনার ফরিদপুরে সম্পত্তি ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে হাসানুর রহমান কোমল (৩২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে উপজেলার বেড়হাউলিয়া গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহত কোমল ওই গ্রামের আকবর আলীর ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের বেড়হাউলিয়া গ্রামে সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে একই বংশের আকবর আলী ও লোকমান হোসেনের গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছিল। এই সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে এর আগে উভয় পক্ষের মধ্যে বহুবার সালিশ বৈঠক হয়েছে। তবে কোনো পক্ষই সালিশের সিদ্ধান্ত না মানায় বিষয়টি অমীমাংসিত থেকে যায়। এক পর্যায়ে সম্পত্তি দখলে যেতে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে বেড়হাউলিয়া গ্রামের ঠাকুরবাড়ি তিনমাথায় উভয়পক্ষের ৪৫/৫০ জন পুরুষ লাঠিসোটা, ইট ও লোহার রড নিয়ে এক পক্ষ অপর পক্ষের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। সংঘর্ষে আকবর আলীর ছোট ছেলে কোমল মারা যায়। এ সময় সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়।
ফরিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সরোয়ার হোসেন বলেন, গ্রামের দুটি পক্ষের মারামারিতে কোমল নামে এক যুবক নিহত হয়। এছাড়া বেশ কয়েকজন আহত হয়।
ফরিদপুর থানার ওসি আবুল কাশেম আজাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সামাজিক বিরোধের জেরে উপজেলার বেড়হাউলিয়া গ্রামে লাঠিসোটা, লোহার রড ও ইট নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। এতে একজন যুবক মারা যায়। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। তবে পুলিশ অভিযুক্তদের ধরতে এরইমধ্যে অভিযান শুরু করেছে।