প্রধান মেনু

ফরিদপুরে প্রচন্ড বর্ষন ও বন্যায় ২০ কোটি টাকার ফসল ও রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত

পাবনার ফরিদপুরে বন্যা ও প্রবল বর্ষনে ফরিদপুর উপজেলার হাদল,ফরিদপুর, বিএলবাড়ী, পুংগলী, ডেমরা ও বনওয়ারীনগর ইউনিয়নের বড়বিল, সাভার বিলসহ বিভিন্ন বিলে রোপা আমন, পাট, প্রভৃতি প্রায় ৮ কোটি টাকার ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে। এছাড়া ফরিদপুরের হেডকোয়ার্টার থেকে বিএলবাড়ী ইউপি অফিস হয়ে ভাঙ্গুড়া উপজেলা হেডকোয়ার্টার প্রায় সাড়ে ৪ কিলোমিটার রাস্তা পানিতে ডুবে প্রটেকশন ওয়ালসহ সিসি ব্লকের ক্ষতি হয়েছে। বিনগর জিসিএম থেকে পুংগলী ইউপি অফিস পর্যন্ত রাস্তা ডুবে কার্পেটিং নষ্ট হয়ে গেছে। বিএলবাড়ী- পুরন্দরপুর ভায়া জন্তিহার রাস্তা , বিবকরী জিসিএম হতে আল্লাহ আবাদ রাস্তা ভায়া রামনগর ঢেউয়ে স্লোক প্রটেক্টশন ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। পাছপুংগলী মাদরাসা থেকে ওয়াবদা বাধ পর্যন্ত পাকা রাস্তা পানিতে তলিয়ে গেছে। বেড়হাউলিয়া বাজার থেকে কাশেমের বটতলা হয়ে আরএইচডি ভায়া চিথুলিয়া জিসিএম রাস্তা ঢেউয়ে স্লোক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার বাকী বিল্লাহ জানান, বন্যায় ফরিদপুরে প্রায় ১০ কোটি টাকার রাস্তা নষ্ট হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। এছাড়া বিএলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, পুংগলী ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম মুকুল, ফরিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান সারোওয়ার হোসেন, বনওয়ারীনগর ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান, হাদল ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম রেজা এবং ডেমরা ইউপি চেয়ারম্যান মাফুজুর রহমান জানান তাদের এলাকার অধিকাংশ মৎস্য খামার বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় প্রায় ৯ কোটি টাকার মাছ পানিতে ভেসে গেছে। একমাত্র সালুমগাড়ায় প্রায় ৫০ একর পুকুরের মাছ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। পারফরিদপুর-বিএলবাড়ী সড়কের মাঝে ব্রিজটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ব্রিজটি ভেঙ্গে পড়লে বৃলাহিড়ীবাড়ী, জন্তিহার, পুরন্দরপুর, পারফরিদপুর প্রভৃত গ্রামের মানুষের চলাচলে বিঘœ সৃষ্টি হবে। বন্যার পানিতে উপজেলায় প্রায় ৪০হাজার লোক পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। এখবর লেখা পর্যন্ত বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের কোন ত্রান বিতরণ করা হয়নি বলে ইউনিয়ন চেয়ারম্যানরা জানান।