প্রধান মেনু

ফরিদপুর হাসপাতালে ডাক্তার সংকটে চিকিৎসা ব্যহত পঃ পঃ কার্যালয়ের ডাক্তার সপ্তাহে ২ দিন অফিস করেন

ফরিদপুর (পাবনা) প্রতিনিধি:
ফরিদপুর উপজেলায় ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স (হাসপাতাল) ডাক্তার সংকট চরম পর্যায়ে পৌঁচেছে। উপজেলার একমাত্র সরকারী হাসপাতালে ২৭ জন ডাক্টারের পদ থাকলেও বর্তমানে মাত্র ২জন ডাক্তার দিয়ে চলছে হাসপাতাল সেবা। এতে প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চল থেকে আসা সাধারণ রোগীদের চরম ভোগান্তিতে পরতে হচ্ছে। ডাক্তারের অভাবে আউট ডোরে সেবা প্রদান করছে সিনিয়র নার্সরা। তাছাড়া ওয়ার্ড বয় না থাকায় আউট সোর্সিংয়ে থাকা দারোয়ান বা নাইট গার্ড দিয়ে চলছে রোগির ড্রেসিংসহ অন্যান্য কাজ। ডাক্তারসহ প্রশাসনে রয়েছে জনবল সংকট। বছরের পর বছর এমন বেহাল অবস্থা থাকায় সমাধানের পথ খুঁজে পাচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, সহকারী সার্জন, মেডিকেল অফিসার, ডেন্টাল সার্জন, বিশেষ চিকিৎসক গাইনি ও শিশু চিকিৎসকসহ মোট ২৭টি পদ রয়েছে। বর্তমানে ৪জন ডাক্তারের মধ্যে দুইজন মাতৃত্বকালীন ছুটিতে থাকায় দুইজন দিয়ে চলছে হাসপাতাল। সব মিলিয়ে এই সরকারি হাসপাতালে ডাক্তার নিয়োগ জরুরী হয়ে পড়েছে।
এবিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডা: রতন কুমার রায় বলেন, চিকিৎসক সংকটে রোগীরা যেমন বিড়ম্বনার পড়ছেন তেমনী নিজেরাও সেবা দিতে হিমসিম খাচ্ছি। এছাড়া পঃ পঃ কার্যালয়ের ডাক্তার বাশরুম মিস লুনা সপ্তাহে ২ দিন অফিস করেন।