প্রধান মেনু

বগুড়ায় খাল থেকে লাশ উদ্ধার ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ

বগুড়ার গাবতলীতে খাল থেকে মহসিন আলী (৫৫) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়ে দিয়েছেন থানা পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের মহিষাবান হাইস্কুলের পশ্চিম পাশের্^ চাউল কাটা খাল থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত মহসিন আলী পশ্চিম মহিষাবান চৌমহনীপাড়া গ্রামের মৃত ময়েজ উদ্দিন প্রামানিকের ছেলে। জানা গেছে, ওই খালের পাশের্^ মহসিন আলীর পানি সেচ মেশিন থাকায় ঘর তৈরী করে সেখানে রাতে থাকতো।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহসিন আলী তার মেয়ের বাড়ি থেকে এসে আর বাড়িতে না গেলে রাতে ওই মেশিন ঘরে আছে মনে করে তার স্ত্রী শুক্রবার সকালে খাবার নিয়ে যায়। কিন্তু মেশিন ঘরে না পেয়ে স্ত্রী খুজঁতে থাকে এক পর্যায়ে ওই চাউল কাটা খালে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন থানায় সংবাদ দিলে ওসি সেলিম হোসেন নেতৃত্বে অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা এসে লাশের সুরতহাল রির্পোট তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়ে দেন।

এ ব্যাপারে থানার ওসি সেলিম হোসেনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, লাশের চোখে এবং অন্ডকোষে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। তিনি আরো বলেন, ঘটনাটি হত্যা হওয়ায় নিহতের স্ত্রী মনোয়ারা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। অপর দিকে উপজেলার বালিয়াদিঘী ইউনিয়নের কালাইহাটা গ্রাম থেকে নুর আলম (২৬) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সবার অগচরে গলায় ফাঁস দিয়ে আতœহত্যা করে নুর আলম। সে ওই গ্রামের মকবর আলীর ছেলে বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে বাগবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবু মুসা মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি উপরোক্ত তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, ২টি লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।