প্রধান মেনু

বগুড়ায় হাটু পানিতে নেমে কৃষকের ধান কেটে দিলো জেলা ছাত্রলীগ

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়ায় হাটু পানিতে নেমে প্রায় এক বিঘা জমির ধান কেটে দিয়ে কৃষকের স্বপ্ন বাঁচিয়ে দিলো জেলা ছাত্রলীগ। বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তাকবীর ইসলাম খানের উদ্যোগে সদরের কৈপাড়া কৃষক সামাদ ফকিরের পানিতে ডুবে যাওয়া জমির ধান কেটে দিয়ে করোনা দুর্যোগের মাঝে তার ঘরে সোনার ফসল তুলে দেন জেলা ছাত্রলীগের একঝাঁক তরুণ নেতৃবৃন্দ।
জানা যায়, বগুড়ায় গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে কৃষক সামাদের একবিঘা জমিতে থাকা পাকা ধান পানিতে ডুবে যায়। করোনা দুর্যোগে অনেক প্রচেষ্টার পরও পায়নি কোন ধান কাটার শ্রমিক। শেষ পর্যন্ত সে যখন হতাশায় তার পাকা ধানের মতোই ডুবে যায় তখন কাস্তে হাতে হাটু পানিতে নেমেই সারাদিন ধরে তার ধান কেটে দেয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। জমির মালিক কৃষক সামাদ বলেন, কয়েকদিন আগের ঝড় বৃষ্টিতে তার প্রায় পুরো জমি পানিতে ডুবে যায়। শুধু ধানের শীষগুলো বের হয়ে ছিল। কখনোই সে ভাবে নাই ছাত্রলীগের ছেলেরা এসে ময়লা পানিতে নেমে তার ধান কেটে দিবে। ফটোশেসন নয় অন্তর থেকে কাজের জন্যে ছাত্রলীগকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানায় সেই সাধারণ কৃষক। ধান কেটে দেওয়ার নেতৃত্বে থাকা ছাত্রনেতা তাকবীর ইসলাম খান জানান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার নির্দেশে সারাদেশের মত বগুড়াতেও জেলা ছাত্রলীগ পরিবারের মাধ্যমে এই কাজের ধারা অব্যাহত থাকবে। এসময় আরও উপস্থিত ছিল ছাত্রলীগ কর্মী সামিউল পরান সজল, সঞ্চয়, সাকিব, শান্ত, জয় কুমার দাস, সিজান, হাবিব, ইমন, মাসুদ সহ আরও অনেকে।