প্রধান মেনু

বৃষ্টিতে জনদূর্ভোগ চাটমোহর পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা

মোঃ নূরুল ইসলাম, চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি ঃ
প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা পাবনার চাটমোহর। কিন্তু নাগরিক সুবিধা ৩য় শ্রেণীর পৌরসভা সমতুল্যও নয়। কারণ এই পৌরসভার যোগাযোগ ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার বেহাল দশার কারণে নাগরিকরা সকল প্রকার সুবিধা থেকেই বঞ্চিত। পৌরসভার অভ্যন্তরীণ সড়কের বেহাল দশা এখন দৃশ্যমান। সড়কগুলো দীর্ঘদিন ধরে চলাচলের অনুপযোগি হওয়ায় যানবাহন ও জনদূর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে।

আসন্ন শারদীয় দূর্গোৎসব সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষে পৌর মেয়র আহুত প্রস্ততি সভায় হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ সড়কের প্রসঙ্গ তুলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তারা দ্রুত সড়ক সংস্কারের দাবি জানান। কয়েকদিনের লাগাতার বৃষ্টিতে পৌরসভার সড়কগুলো যেন ডোবায় পরিণত হয়েছে। যানবাহন চলাচলই দুরুহ হয়ে পড়েছে। তবে প্রধান সড়কের একটি অংশ রোলার করার কারণে কিছুটা স্বস্তি এসেছে জনমনে। কিন্তু অধিকাংশ সড়ক নিয়েই ক্ষোভ রয়েছে সাধারণ মানুষের মাঝে। বৃষ্টিতে জনদূর্ভোগ আরো বেড়েছে। সরেজমিনে দেখা গেছে চাটমোহর পৌরসভার প্রধান সড়কটি চলাচলের অনুপযোগি। পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সদর দপ্তর থেকে থানা মোড় হয়ে দোলং পর্যন্ত সড়কটি হাজারো খানাখন্দে ভরপুর। বিশেষ করে থানার সামনে ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্েরর প্রধান ফটকের সামনে সামান্য বৃষ্টিতেই পানি জমে যায়। যানবাহন চলা তো দূরে থাক, পায়ে হেঁটে চলতেই কষ্টভোগ করতে হয়। গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে থানা মোড় আমতলায় সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতার। চাটমোহর থানা মোড় হতে উপজেলা পরিষদ এলাকা হয়ে নতুন বাজার হাইস্কুল মোড় পর্যন্ত সংস্কার শুরু হলেও বৃষ্টির কারণে থেমে আছে- জানালেন পৌর মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলাল। এছাড়া বিভিন্ন মহল্লার সড়কগুলো চলাচলের একবারেই অযোগ্য হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন সড়কগুলো সংস্কার না করায় তা চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে।

অটোভ্যান চালক মোঃ নজরুল ইসলাম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, পৌরসভা থেকে প্রতিটি গাড়ি থেকে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে অথচ সড়কগুলো মেরামত করার নাম গন্ধ নেই। সকল সড়কেরই বেহাল দশা। মালামাল পরিবহন ও চলাচল কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। এসব রাস্তা দ্রুত সংস্কারের দাবি পৌরবাসির।

পৌর মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলাল বলেন, দ্রুতই রাস্তাগুলোর সংষ্কার ও মেরামতের কাজ শেষ হবে। বৃষ্টির কারণে কাজ বন্ধ রয়েছে। ইতোমধ্যে কিছু রাস্তা সংষ্কার ও করার জন্য টেন্ডার দেওয়া হয়েছে। কিছু রাস্তার কাজ শুরু করা হয়েছে। অল্প দিনের মধ্যে কাজ সম্পন্ন হয়ে যাবে।