প্রধান মেনু

বড়াইগ্রামে ইউপি সদস্য ফেরদৌস আলমের করোনা মুক্তি

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি
নাটোরের বড়াইগ্রামের জোয়াড়ী ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ড সদস্য ফেরদৌস উল আলম ২৭ দিন আইসোশনে থাকার পর করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেয়েছেন। সোমবার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. পরিতোষ কুমার রায় তার হাতে করোনা মুক্তির সনদ তুলে দেন। একই সঙ্গে তিনি তাকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন।
জানা যায়, করোনা মহামারীর শুরু থেকেই ইউপি সদস্য ফেরদৌস উল আলম নিজ উদ্যোগে এবং উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারীর পাশে থেকে দুস্থ মানুষদের মাঝে খাদ্য ও করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করে আসছিলেন। এর এক পর্যায়ে জ¦রে আক্রান্ত হলে গত ২২ জুলাই তিনি বড়াইগ্রাম হাসপাতালে নমুনা দেন। পরে ২৮ জুলাই প্রাপ্ত রিপোর্টে তিনি কোভিড-১৯ পজিটিভ হিসাবে সনাক্ত হন। এরপর টানা ২৭ দিন তিনি নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ মোতাবেক ওষুধ সেবন করেন। তিনি করোনা থেকে মুক্ত হওয়ায় মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের প্রতি শুকরিয়া প্রকাশের প্রকাশের পাশাপাশি নিজ স্ত্রী, বাবা-মা, উপজেলা চেয়ারম্যান, তার ওয়ার্ডের সকল ভোটারসহ শুভাকাঙ্খীদের প্রতি অসীম কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন।