প্রধান মেনু

ভর্তি হবার পর সুস্থ না হতেই ১০ ঘন্টা পর ছাড়পত্র।। আবস্থার অবনতি হওয়ার পরদিন ২ জনকে হাসপাতালে ভর্তি।

পাবনা প্রতিনিধিঃ পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিপক্ষের হামলায় গুরতর বাক প্রতিবন্দিসহ আহত ৩ জন রোগী রাতে ভর্তি হবার পর সুস্থ্য না হতেই পরদিন সকাল ১০টায় ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। অসুস্থ রোগী হাসপাতাল
থেকে বাড়ি ফেরার পর আবস্থার অবনতি হওয়ার ২ জন রোগীকে মঙ্গলবার বিকেল ৩
টায় ডা. রাকিবের সহযোগীতায় পূণরায় পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরতর আহত মজিদ ও আজিম নামের ২ জন রোগী হাসপাতালের পুরুষ সার্জিক্যাল ওয়ার্ডের ১২৭ নং রুমের ১৬ এবং ১৭ নং
বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অভিযোগ পাওয়ার পর পাবনা থানার অফিসার
ইনচার্জ নাসিম আহমেদ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পুলিশের একটি
টিমকে হাসপাতালে পাঠান। পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীদের
চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন। পাবনা থানা পুলিশ গতকাল বুধবার বেলা ১টার
দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। আহত ২জনের মাথায় গুরতর জঝমপ্রাপ্ত
হওয়ায় হাসাপাতালের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক চিকিৎসাধীন ২ জনকেই
সিটি স্ক্যান করতে বলেছেন।
পাবনা থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ জুন সন্ধা ৭
টার দিকে পাবনা সদর উপজেলার মালিগাছা ইউনিয়নের ঘরনাগড়া পশ্চিম
পাড়ার দরগাপাড়া নামক স্থানে প্রতিপক্ষ একই গ্রামের জলিল মোল্লার ছেলে
মজিদ, আজিম এবং বাক প্রতিবন্ধী ছেলে নাজিমকে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র
নিয়ে হামলা করে। ফলে ৩ জনই গুরুত্বর রক্তাক্ত জখমপ্রাপ্ত হয়। ঘটনার পর ঐদিন রাত
৯টার দিকে আহত ৩ জনকে চিকিৎসার জন্য পাবনা মেডিক্যাল কলেজ
হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর সুস্থ না হতেই তাদের
ছারপত্র দেওয়ায় এলাকায় জনমনে নানা রকম প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিপক্ষের
কোন প্রভাবশালী মহল হাসপাতালে দায়িত্বপ্রাপ্ত কারো সাথে যোগাযোগ
করে এ কাজটি করেছেন বলে বাদী পক্ষ ধারণা করছেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখার
প্রয়োজন বলে সংশ্লিষ্টমহল আশাপোশন করছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত
গুরতর আহত মজিদ ও আজিম নামের ২ জন রোগী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন
রয়েছে।
৩জন রোগী সুস্থ না হতেই তাদের ছাড়পত্র দেওয়ার বিষয়ে পাবনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. আবুল হোসেন কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি জানান এ বিষয়টি আমার জানা নেই। তিনি গতকাল বুধবার সকাল ১১টার দিকে সংবাদটি জানার পর হাসপাতালে ভর্তি ২জন রোগীকে সঠিকভাবে চিকিৎসা প্রদান করার জন্য দায়িত্ব প্রাপ্ত চিকিৎসকদের
নির্দেশ প্রাদান করেছেন।
এ ব্যপারে আহতদের ভাই আজিম মোল্লা বাদী হয়ে পাবনা থানায় একটি লিখিত এজাহার দাখিল করেছে।