প্রধান মেনু

ভাঙ্গুড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে কৃষকের মৃত্যু

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় সর্দিজ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে আজহার উদ্দিন (৪৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে দশটার দিকে তিনি নিজ বাড়িতে মারা যান। তার বাড়ি ভাঙ্গুড়া পৌর শহরের উত্তর সারুটিয়া মহল্লায়। সে ওই মহল্লার খোরশেদ আলী খোকার ছেলে। আজহার উদ্দিন পেশায় একজন কৃষক ছিলেন। ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার হালিমা খানম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বহুমূত্র রোগে আক্রান্ত আজহার উদ্দিন কয়েকদিন ধরে সর্দিকাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। একপর্যায়ে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় তিনি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভাঙ্গুড়া পৌর শহরের নিরাপদ ক্লিনিকে চিকিৎসককে দেখাতে যান। সেখানে পাবনা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক রাজু আহমেদ তার এক্সরে সহ অন্যান্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন। এতে শরীরে করোনা উপসর্গ থাকায় চিকিৎসক রাজু আহমেদ আজহার উদ্দিনকে পাবনা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। কিন্তু আজহার উদ্দিন সদর হাসপাতালে না গিয়ে বাড়িতে চলে যান। পরে রাত সাড়ে দশটার দিকে তিনি মারা যান।
চিকিৎসক রাজু আহমেদ বলেন, আজহার উদ্দিন বৃহস্পতিবার রাতে তার কাছে চিকিৎসা নিতে আসেন। এসময় তার শরীরে করোনা উপসর্গ থাকায় দ্রুত পাবনা সদর হাসপাতলে গিয়ে চিকিৎসা নিতে বলা হয়। 
সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুর রহিম বলেন, নিহত আজহার উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে বহুমূত্র রোগে আক্রান্ত ছিল। এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাতে সর্দিজ্বর ও শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তিনি চিকিৎসককে দেখান। চিকিৎসক করোনা সন্দেহে তাকে পাবনা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। কিন্তু তিনি হাসপাতালে না গিয়ে বাড়িতে চলে আসেন। পরে রাত সাড়ে দশটার দিকে তিনি মারা যান।
ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার হালিমা খানম বলেন, নিহত আজহার উদ্দিন পূর্বে থেকেই বহুমূত্র ও সিবিআর রোগে ভুগছিলেন। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাতে শ্বাসকষ্ট বেড়ে তিনি মারা যান। নিহত ব্যক্তির করোনা পরীক্ষা করতে নমুনা সংগ্রহ করা হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাকে দাফন করা হবে।