প্রধান মেনু

ভাঙ্গুড়ায় শ্রমিকদের পিটিয়ে আহত করলেন জোতদার

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই নারীসহ ৫ জন শ্রমিককে পিটিয়ে আহত করেছে আব্দুস সালাম ফকির নামে এক জোতদার। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের পুকুরপাড় গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আহত শ্রমিকরা ভাঙ্গুড়া পৌরশহরের মেন্দা মহল্লার বাসিন্দা। এ ঘটনায় আহত শ্রমিক সরদার আশরাফ আলী ভাঙ্গুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পান।

লিখিত অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ভাঙ্গুড়া পৌরশহরের মেন্দা মহল্লার আশরাফ আলী নামে এক শ্রমিকের নেতৃত্বে ৩ জন পুরুষ এবং ২ জন নারীর একটি দল আজ শুক্রবার সকালে উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের পুকুরপাড় গ্রামে বোরো ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ খুঁজতে যায়। একপর্যায়ে ওই ইউনিয়নের পুকুরপাড়ে গ্রামের প্রভাবশালী জোতদার আব্দুস সালাম ফকির এই নারী ও পুরুষদের কাজে নেয়। এরপর সারাদিন তারা বোরো ধান কাটা ও মাড়াই করার কাজ করেন। কাজ শেষে তারা সন্ধ্যায় বাড়ি ফেরার জন্য প্রস্তুতি নেন। এসময় সালাম ফকির তার ২৫টি গরুর খামারের ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করতে বলেন ওই শ্রমিকদের। কিন্তু শ্রমিকরা খামার পরিষ্কার করতে অস্বীকৃতি জানালে সালাম ফকির বাঁশের লাঠি দিয়ে শ্রমিক আশরাফ আলী, আমিরুল, হান্নান ও দুই নারীকে পিটিয়ে আহত করে। এদের মধ্যে আমিরুলের মাথায় মারাত্মক জখম হয়। পরে সবাই ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে চিকিৎসা নেয়। তবে আমিরুলের মাথায় পাঁচটি সেলাই দেওয়ার কারণে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে রাখা হয়। এ ঘটনায় শ্রমিক সরদার আশরাফ রাতে ভাঙ্গুড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
ভাঙ্গুড়া থানার ডিউটি অফিসার এএসআই মাসুদ রানা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শ্রমিকদের পিটিয়ে জখম করেছে এক জোতদার। এ ঘটনায় শ্রমিক নেতা আশরাফ আলী থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। তাই অভিযুক্ত সালাম ফকিরের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।