প্রধান মেনু

ভাঙ্গুড়ায় ইলিশ বহনকারীকে সাত দিনের কারাদণ্ড

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় ইলিশ বহন করার অপরাধে সোহেল রানা (৩৫) নামে এক ব্যক্তিকে সাতদিনের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। সোমবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এই আদেশ দেন। সোহেল মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামের আব্দুস সোবহানের ছেলে। এ সময় প্রায় দুই মণ ইলিশ মাছ জব্দ করা হয়।

জানা যায়, সোহেল রানা সহ তিন-চারজন ব্যক্তি গুমানী নদী দিয়ে একটি বালুর নৌকায় দুইটি কার্টুনে ভরে দুই মণ ইলিশ মাছ নিয়ে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে তারা ভাঙ্গুড়া উপজেলার নৌবাড়িয়া গ্রামে পৌঁছে ইলিশ বিক্রির জন্য এলাকাবাসীর কাছে স্থানীয় বাজারের লোকেশন জানতে চায়। এসময় এলাকাবাসী তাদেরকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। তবে প্রশাসনের লোকজন পৌঁছানোর আগেই সোহেল রানা ছাড়া অন্যরা পালিয়ে যায়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে সোহেল রানাকে সাতদিন কারাদণ্ডাদেশ দেন। আর উদ্ধার করা মাছ স্থানীয় এতিমখানা মাদ্রাসায় বিতরণ করা হয়। এদিন বিকেলেই সোহেল রানাকে পাবনা জেলহাজতে পাঠানো হয়।