প্রধান মেনু

ভাঙ্গুড়া পাটুলীয়াপাড়ায় ভয়াবহ আঅগ্নিকান্ড

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধ : করোনায় কাজ হারানো এক মুটে (কুলি) এবার সব হারালো আগুনে। পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার পাটুলীয়াপাড়া গ্রামের কুলি জাহাঙ্গির আলমের বাড়িতে ঘটে এই ভয়াবহ অগ্নিকান্ড। রবিবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে এই ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় জনগণ আগুন নেভানোর চেষ্টা করতে থাকে। পরে পার্শ্ববর্তী উপজেলা চাটমোহরে থাকা ফায়ার সার্ভিস কার্যালয়ে জানানো হলে তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। প্রাথমিক ভাবে রান্নার চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে ধারনা করা হচ্ছে।

সরজমিনে গিয়ে এলাকাবাসীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আগুনে পুড়ে যাওয়া বাড়ির মালিক দিনমজুর জাহাঙ্গীর একজন কুলি। সে বাজারে কুলির কাজ করত। সম্প্রতি করোনায় কাজ বন্ধ থাকায় রবিবার সকালে খাবার খেয়ে স্ব-পরিবারে বাড়ির পাশের মাঠে কাজ করছিল। এ সময় তার বাড়িতে আগুলাগে। প্রতিবেশিরা তা নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করলেও আগুন দ্রূত ছড়িয়ে রান্নাঘরের পাশে থাকা আরও দুটি ঘরে ধরে যায়। পরে মসজিদের মাইকে ঘোষনা দিয়ে লোক জড়ো করে আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ করতে থাকে। পরে ফায়ার সার্ভিসে ফোন দেয়। তারা পৌঁছানোর আগেই আরও একটি ঘরে আগুন ধরে যায়। ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নেভাতে সক্ষম হলেও ততক্ষণে চারটি ঘরই সম্পূর্ণ ছাই হয়ে যায়। মূলত বাড়ির মালিক ঘরে তালা দিয়ে কাজে যাওয়ার ঘর থেকে কিছুই বের করা সম্ভব হয়নি। এই অগ্নিকান্ডে বাড়ির মালিকের প্রায় চার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়ে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য ওসমান গনি জানান, এই পরিবার খুবই দরিদ্র। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা চেয়ারম্যান এসেছিল তারা প্রাথমিক ভাবে কিছু সহায়তা দিয়েছে। পরবর্তীতে আরও কিছু ব্যবস্থা করা হবে।