প্রধান মেনু

ভারতের ভোজপুরি ও হিন্দি ছবিতে মিষ্টি জান্নাত

‘লাভ স্টেশন’ ছবি দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু মিষ্টি জান্নাতের। এরপর ‘চিনিবিবি’, ‘তুই আমার রাণী’সহ বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। এবার ভারতের ভোজপুরি ও হিন্দি ছবিতে অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে বাংলাদেশের মিষ্টির।

সম্প্রতি মুম্বাইয়ে ছবি দুটির জন্য ফটোশুটও করেছেন। ডাব্বু ও অভিষেক নামের দুজন ফটোগ্রাফার ছবি তুলেছেন তার। ১৫ অক্টোবর থেকে শুরু হবে ভোজপুরি ছবিটির শুটিং। এতে মিষ্টির বিপরীতে অভিনয় করবেন ভোজপুরি ছবির সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেতা কেশরী লাল যাদব।

এরপর ১২ ডিসেম্বর শুরু হবে হিন্দি ছবির শুটিং। মিষ্টি বলেন, ‘অনেক আগে থেকেই হিন্দি ও ভোজপুরি ছবি দুটির ব্যাপারে কথা চলছিল। অবশেষে এবার সব কিছু চূড়ান্ত হলো। শিগগিরই ঘটা করে ছবি দুটির নাম ও পরিচালক কারা তা জানাব। এর জন্য আমার ভক্তদের আরেকটু অপেক্ষা করতে হবে।’

ভারতের হিন্দি কিংবা তেলেগু সিনেমাতে ঢাকাই ছবির অনেক অভিনয়শিল্পীকেই দেখা গিয়েছে। তবে এবারই প্রথমবারের মতো ভোজপুরি সিনেমাতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন চিত্রনায়িকা মিষ্টি জান্নাত। ভারতের উত্তরপ্রদেশে ও বিহারে ভোজপুরি ভাষাভাষী প্রায় ১০ কোটি মানুষের বসবাস। সেখানেই মূলত ভোজপুরি ছবির বাজার।

মূলত ১৯৬৩ সালে ভোজপুরি সিনেমার যাত্রা শুরু হলেও ২০০১ সালে এসে এটা দর্শক জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করে। সেই সময়কার সুপারস্টার মনোজ তেওয়ারি ও ররি কৃষাণের হাত দিয়েই মূলত উত্থান হলেও পরবর্তিতে অমিতাভ বচ্চন ও মিঠুন চক্রবর্তির মতো জনপ্রিয় অভিনেতারা ভোজপুরি সিনেমায় অভিনয় করেছেন।

একসময়ে সুপারস্টার মনোজ তেওয়ারি ও ররি কৃষাণ বর্তমানে বিজেপির সাংসদ। তবে বর্তমানে ভোজপুরি সিনেমাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে কেশরী লাল যাদব, পবন সিং ও দীনেশ লাল যাদবরা। এদের মধ্য বর্তমানে সবচেয়ে সফল কেশরী লাল যাদব। সেই কেশরীর সাথে ভোজপুরি সিনেমায় পা রাখছেন বাংলাদেশের মিষ্টি জান্নাত।