প্রধান মেনু

মাদকসেবি ও মাদক ব্যবসায়ীরা সমাজের ব্যাধি- অতিরিক্ত সচিব ড. তরুণ কান্তি শিকদার

আর কে আকাশ: মাদকমুক্ত শিক্ষাঙ্গণ ও শিক্ষার্থীদের মাঝে সচেতনতা বাড়াতে পাবনার ঐতিহ্যবাহি সরকারি এডওয়ার্ড কলেজে মাদকবিরোধী আলোচনাসভা ও শপথ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, পাবনার আয়োজনে সকাল সাড়ে ১০টায় শহীদ আব্দুস সাত্তার মিলনায়তনে মাদকবিরোধী আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সুরক্ষা সেবা বিভাগ) ড. তরুণ কান্তি শিকদার।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, পাবনার উপ-পরিচালক পারভীন আখতার।
পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন, সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. হুমায়ুন কবির মজুমদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস (পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার), সহকারী সিভিল সার্জন ডা. এ.কে.এম. আবু জাফর খান, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আহসান হাবীব, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মো. জাফরুল্লাহ কাজল, সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হোসেন।

মাদকবিরোধী আলোচনায় বক্তারা বলেন, মাদক একটি অভিশাপ। মাদক মানুষের অতীব মূল্যবান জীবন তিলে তিলে ধ্বংস করে দেয়। মাদকাসক্তি কর্মশক্তির বড় একটি অংশ গ্রাস করছে প্রতিনিয়ত। নষ্ট হচ্ছে যুবসমাজের সম্ভাবনাময় শক্তি। মাদকের ফলে জাতি হাঁটছে অন্ধকারের দিকে, মৃত্যুর দিকে হাঁটছে নৈতিক মূল্যবোধ। তাই সমাজ ও জাতির স্বার্থে মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। ‘মাদকসেবি ও মাদক ব্যবসায়ীরা সমাজের ব্যাধি’।তাই দেশ ও জাতি গঠনে আমাদের সবাইকে মাদক থেকে দূরে থাকতে হবে এবং সচেতন হতে হবে।

এসময় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার বন্ধ ও প্রচার প্রতিরোধে মাদকবিরোধী সভায় উপস্থিত শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাদকবিরোধী শপথ বাক্য পাঠ করান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সুরক্ষা সেবা বিভাগ) ড. তরুণ কান্তি শিকদার।
এসময় মাছরাঙা টিভির পাবনা জেলা প্রতিনিধি রিজু, এশিয়ান টিভির পাবনা জেলা প্রতিনিধি আর কে আকাশ, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম, আকাশ নিউজ ২৪ ডটকম এর সহ-বার্তা সম্পাদক আসাদুল ইসলাম শফিকসহ কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন
আলোচনা সভা শেষে মাদক বিরোধী মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে মিডিয়া পার্টনার ছিল এশিয়ান টিভি ও মাছরাঙা টিভি।