প্রধান মেনু

রাবির ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি পরিবর্তনের দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত

রাশেদ রাজন:
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ৩য় দিনের মত ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ¯œাতক (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষায় বিভাগ পরিবর্তন, ভর্তি ফি কমানো, পৃথক সমন্বিত ইউনিট ও পদ্ধতি পরিবর্তনের দাবিতে মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় রাবি কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ কর্মসূচী পালিত হয়।

নগরীর সিটি কলেজের শিক্ষার্থী রাহাতের সঞ্চালনায় বক্তারা বলেন, উচ্চ মাধ্যমিকে পড়া বিষয়গুলোর ওপরই ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার যে সিদ্ধান্ত তা অমানবিক। কেননা বিগত বছর এবং অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মানুসারে গত দুই মাস যাবৎ প্রস্তুতি নিচ্ছি। হটাৎ নিয়ম পরিবর্তন করে বাংলা, ইংরেজি এবং সাধারণ জ্ঞানের উপর পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। এছাড়াও এবার ভর্তি ফর্মের যে উচ্চ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে তাতে অনেক অসচ্ছল মেধাবী শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবে না।

একই সঙ্গে আবেদন ফি ৫০০ টাকায় সীমাবদ্ধ রাখা, পৃথক পৃথক ইউনিটে পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ দেয়া, ইউনিট প্রতি ৩২,০০০ সিলেকশন পদ্ধতি বাতিল এবং নতুন বিভাগ খোলার দাবি জানান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নিকট।

এদিকে গত সোমবার রাবির অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের ব্যানারে ভর্তি পরীক্ষায় উচ্চ মূল্য ফি নির্ধারণের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও প্রত্যেক ভর্তি পরীক্ষার্থীকে যোগ্যতা অনুসারে একাধিক ইউনিটে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ প্রদানের দাবি জানিয়ে রাবি ভিসি বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে শাখা ছাত্রলীগ।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা বলেন, বিভাগ পরিবর্তনের বিষয়টি এখনও পুরোপুরি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় নি। আগামী ৪ আগস্ট এ বিষয়ে মিটিং রয়েছে সেখানে আলোচনা করা হবে বলে জানান তিনি।