প্রধান মেনু

রোহিঙ্গা ইস্যুতে দেশকে অস্থিতিশীলতা করার চেষ্টা কারীরা ব্যর্থ হবে – মোহাম্মদ নাসিম এমপি

রফিকুল ইসলাম সুইট : বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি বলেছেন, বিএনপির এই তথাকথিত হুমকিতে আমরা কেউ ভীতূ নই। বিএনপি সব সময় রাজনীতিতে ভুল করে আসছে, আবারও ভুল করতে যাচ্ছে। তারা নির্বাচন বয়কট করার ঘোষনা দিয়ে নির্বাচন করেছে। পার্লামেন্টে আসবে না বলে পার্লামেন্টে আসছে। পার্লামেন্টে তাদের ভূমিকা রাখতে আমরা কেউ বাধা দিচ্ছি না। নির্বাচন উত্তরকালে দেশে শান্তিময় পরিস্থিতি বিরাজ করেছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জঙ্গি দমন হয়েছে, সমস্ত দেশে উন্নয়ন কাজ চলছে। শুধু মাত্র রোহিঙ্গা সমস্যা ছাড়া এখন দেশে কোন সমস্যা নাই। রোহিঙ্গাদেরকেও আমরা শান্তিপূর্ন ভাবে মায়ানমারে ফেরত পাঠাবো আন্তর্জাতিক চাপের মধ্যদিয়ে।
শুক্রবার জুম্মার নামাজের আগে পাবনার সুজানগর উপজেলার বিরাহিমপুরে নব নির্মিত মরহুম খোরশেদ আলম স্মৃতি জামে মসজিদ এর উদ্বোধন কালে সাংবাদিকদের সাথে আলাপ কালে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বিএনপিকে অনুরোধ করবো এখন এই সমস্ত তথাকতিথ ফাঁকা আওয়াজ না দিয়ে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে ও উন্নয়নে সরকারকে সহযোগিতা করা জন্য। আমাদের ভুলক্রুটি হলে পার্লামেন্টের ভিতরে কিংবা বাইরে আলোচনা সমালোচনা মাধ্যমে সমোঝতা করুন। অন্য কোন রকম পথ অবলম্বন করলে আবার ভুল করবে। শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে আলোকিত বাংলাদেশ হয়েছে, জঙ্গিমুক্ত হয়েছে আগামী নির্বাচনে আবারও আমরা জয় লাভ করবো এতে কোন সন্দেহ নাই।
এমপি নাসিম আরো বলেন, শেখ হাসিনা মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছিলো, খাবার দিয়েছে, চিকিৎসা দিয়েছে, সমস্ত ব্যবস্থা দিয়েছে। রোহিঙ্গাদের মধ্যে এখন কিছু স্বাধীনতা বিরোধীরা অনুপ্রবেশ করে রোহিঙ্গা ইস্যুকে কেন্দ্র করে দেশকে অস্থিতিশীলতা করার চেষ্টা করছে তারা ব্যর্থ হবে।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পাবনা-২ আসনের সংসদ সদস্য আহমেদ ফিরোজ কবির, সাবেক এমপি মোহাম্মদ তানভীর, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল, জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ, পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা বিশিষ্ট সাংবাদিক আব্দুল মতীন খান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোশারফ হোসেন, সাঁথিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মাহমুুদ দেলোয়ার, সুজানগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিনুজ্জামান শাহিন, পাবনা চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মাহবুবুল আলম মুকুল, আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম রাব্বানী টেগার সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও আওয়ামীলীগের অঙ্গসহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
উল্লেখ,১৯৮৭ সালে ৬ সেপ্টেম্বরেন পাবনা থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হলে বিরাহিমপুর নামক স্থানে হৃদযন্ত্র ক্রীয়া বন্ধ হয়ে মোহাম্মদ নাসিম এমপি’র শশুর মরহুম খোরশেদ আলম মৃত্যু বরণ করেন। তার স্মরণে এই বিরাহিমপুরেই পারিবারিক উদ্যোগে মসজিদটি নির্মান করা হয়।