প্রধান মেনু

সততা ষ্টোরের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের দুর্র্নীতিমুক্ত মানসিকতা গড়ে উঠছে- দুদক পরিচালক

স্টাফ রিপোর্টার: দুর্নীতি দমন কমিশন রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মোহাম্মদ মোরশেদ আলম বলেছেন, ছোট থেকেই শিক্ষার্থীরা যেন সৎ জীবন-যাপনের অভ্যাস করতে পারে তার চর্চার জন্য বিদ্যালয়ভিত্তিক সততা ষ্টোর চালু করা হয়েছে। যার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের দুর্নীতিমুক্ত মানসিকতা গড়ে উঠছে যা ইতিবাচক পরিবর্তন।
বগুড়া জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সার্বিক ব্যবস্থাপনায় শনিবার জিলা স্কুল এবং নিশিন্ধারা ফকিরউদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজে দুদকের অর্থায়নে গঠিত সততা ষ্টোর পরিদর্শনকালে তিনি উপোরোক্ত কথাগুলি বলেন। দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় বগুড়ার উপ-পরিচালক মনিরুজ্জামান এর নেতৃত্বে সততা ষ্টোর পরিদর্শনকালে বগুড়ায় দুদক এবং প্রতিরোধ কমিটির সার্বিক কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করে শিক্ষক, সততা সংঘের সদস্য এবং জেলা দুপ্রকের নেতৃবৃন্দদের উদ্দেশ্যে দুদক পরিচালক আরো বলেন, সততা ষ্টোর থেকে ব্যবসায়িক লাভের দরকার নেই। কিন্তু যে মহৎ উদ্দেশ্যে নিয়ে এটি গঠন করা হয়েছে তা বাস্তবায়নে সকলকে সর্বদা সচেষ্ট থাকতে হবে। শতভাগ সফলতা নাও আসতে পারে কিন্তু এই পদ্ধতিতে অবশ্যই সংখ্যাগরিষ্ঠ শিক্ষার্থীরাই দুর্নীতিমুক্ত মানসিকতায় বেড়ে উঠার জন্য উৎসাহিত হবে। পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর মোজাম্মেল হক, দুদক বগুড়া কার্যালয়ের উপ সহকারী পরিচালক ওয়াহিদ মঞ্জুর সোহাগ, নিশিন্ধারা ফকিরউদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল গফুর ফকির, বগুড়া জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোস্তাক হাবিব, জেলা দুপ্রকের কার্যনির্বাহী সদস্য যথাক্রমে ইমতিয়াজ আহম্মেদ, বাবুল আখতার রিপন, জাহাঙ্গীর আলম, সাংবাদিক সঞ্জু রায় এবং মনোয়ারা খাতুন সোহানা।