প্রধান মেনু

সলঙ্গায় চাচাতো ভাইয়ের দায়ের কোপে স্কুলছাত্রী বোনের মৃত্যু

সলঙ্গা (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় চাচাতো ভাইয়ের দায়ের কোপে বোন শাপলা খাতুনের (১৪) মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এ সময় বোনকে বাঁচাতে গিয়ে দায়ের কোপে শাপলার মা আমিনা খাতুন ও ঘাতকের মা কল্পনা খাতুন গুরুত্বর আহত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে সলঙ্গা থানার শাহরিয়াপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শাপলা খাতুন ধামাইলকান্দি কেফায়েত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্রী ও শাহরিয়াপুর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে। সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জেড জেড মো: তাজুল হুদা, এসআই সবুজ রানা, জাহাঙ্গীর হোসেন, আসলাম ও এএসআই জেসমানসহ সঙ্গীয় ফোর্স সাথে নিয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনা স্থলে গিয়ে ঘাতক আশিককে গ্রেফতার করেছে। আশিক ওই গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে।

ঘাতক আশিকের মা কল্পনা খাতুন জানান, আশিকের মাথায় সমস্যা ছিল। তাকে বাড়ীতেই আটকে রাখা হয়েছিল। আর শাপলাসহ আমরা কজন বাড়ীতে বসেছিলাম। এ সময় হঠাৎ আশিক ছুটে এসে দা দিয়ে পিছন থেকে শাপলাকে এলোপাথারি কোপাতে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই শাপলা মারা যায়। আমরা এগিয়ে গেলে আমাদেরকে কুপিয়ে আহত করে। পরে এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। একই সময়ে ঘাতক আশিককে আটকে রেখে পুলিশে সংবাদ দেয়।

সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জেড জেড মো: তাজুল হুদা জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘাতক আশিককে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য: গত এক মাস আগে থানার শহরিয়ার পুর গ্রামে হাফিজুর নামে এক যুবককে কুপিয়ে আহত করে আশিক আহম্মেদ। এনিয়ে এলাকায় একাধীকবার দেন দরবার করেছে এলাকার মাতব্বরা।