প্রধান মেনু

সাঁথিয়ায় গণপিটুনিতে ২ ডাকাত নিহত, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

সাঁথিয়া প্রতিনিধিঃ
পাবনার সাঁথিয়ায় ডাকাতি করে যাওয়ার সময় এলাকাবসীর গণপিটুনিতে দুইজন ডাকাত নিহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে ছোন্দহ গ্রামে পাউবোর নিস্কাশন ক্যানেলে। এসময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে এক রাউন্ড তাজা গুলি ও একটি শাটারগান উদ্ধার করে।
পুলিশের দাবী নিহতরা চরমপন্থি সর্বহারা দলের সক্রিয় সদস্য ছিল। নিহতরা হলেন- উপজেলার জোড়গাছা গ্রামের আঃ ছাত্তারের ছেলে শাহীন ওরফে হলকা শাহীন (৪৫) ও মাছিম ওরফে কালু (৩৫) পিতা অজ্ঞাত।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদের গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সাঁথিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাতেই তাদের পাবনা মেডিক্যাল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
শনিবার সকালে সরেজমিনে গেলে নন্দনপুর ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম লিটন মোল্লা বলেন, নিহতরা দীর্ঘ দিন ধরে এলাকায় চাঁদাবাজী, ডাকাতি ও সন্ত্রাসী কার্যাক্রম করে আসছিল। নিস্কাশন ক্যানাল পাড়ের বাসিন্দা আবু সিদ্দিকের ছেলে মুনসুর, আমিন উদ্দিনের স্ত্রী শিলা, লুৎফর রহমানের স্ত্রী সাফিয়াসহ অনেকেই জানান, এরা অনেক দিন ধরে ছোন্দহ, দাড়ামুধা, চুলকাটাইসহ বিভিন্ন গ্রামে গৃহ বধূদের ¯¦র্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়া, চাঁদাবাজি, অটোরিক্সা ভ্যান চুরি করত। সন্ত্রাসীরা নিহত হওয়ায় এলাকাবাসী আনন্দ উল্লাস করছে।
সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, শুক্রবার মধ্যরাতে ৪ জন চরমপন্থি সদস্য উপজেলার ছোন্দহ ক্যানেলপাড়া গ্রামের সিদিকের বাড়ি থেকে ডাকাতি করে যাওয়ার সময় তাদের চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে গেলে ডাকাতদল ক্যানেলের পানিতে ঝাঁপ দেয়। কচুরিপানার মধ্য থেকে দুইজনকে ধরে গণপিটুনি দেয় জনতা। বাকি দু’জন পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে ১ রাউন্ড তাজা গুলি ও একটি শাটারগান উদ্ধার করা হয়েছে। ওসি আরো জানান, তাদের বিরুদ্ধে সাঁথিয়াসহ বিভিন্ন থানায় অস্ত্র, খুন, ডাকাতি, ছিনতাই ও বিস্ফোরক আইনে ততোধীক মামলা রয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বেড়) সার্কেল জিল্লুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।