প্রধান মেনু

সাঁথিয়ায় নিজ নবজাতক সন্তানকে পাচারের উদ্দেশ্যে চুরি, ছাত্রলীগ নেতা আটক

সাঁথিয়া পাবনা
পাবনার সাঁথিয়ার কাশিনাথপুর একটি ক্লিনিক থেকে নিজ নবজাতক সন্তানকে চুরি করে পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোস্তফা আহমেদ সাদ্দাম। নবজাতকে উদ্ধার ও সাদ্দামকে আটক করেছে সাঁথিয়া থানা পুলিশ।
জানাযায়, গত ১৬ জলাই (বৃহস্পতিবার) সকালে উপজেলার কাশিনাথপুর ক্রিসেন্ট ক্লিনিকে সন্তান প্রসব করে বেড়া উপজেলার পাইকান্দি গ্রামের আঃ সালামের ছেলে ও পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোস্তফা আহমেদ সাদ্দামের স্ত্রী রহিমা খাতুন (২২)। নবজাতক শিশুটির জন্মের ৫ ঘন্টা পরে ক্লিনিক থেকে উধাও হয়ে যায়। অনেক খুঁজাখুঁজির পর সিসি ক্যামেরায় দেখা যায় শিশুকে নিজের বাবা সাদ্দাম নিয়ে যাচ্ছে। পরে পুলিশকে সংবাদ দিলে পুলিশ কাশিনাথপুর থেকে সাদ্দাম (২৬) কে আটক করে। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী শিশু কন্যাকে শাহজাহাদপুরের এক মহিলার নিকট থেকে বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় উদ্ধার করা হয়। মাতৃহীন অবস্থায় দীর্ঘ সময় থাকায় শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সারা দিন নবজাতকটি মাতৃদুধ পান না করায় তার অবস্থা আশংকা জনক হয়ে পড়ে।
সাঁথিয়া থানার ওসি তদন্ত আমিনুল ইসলাম জানান, সাদ্দামের সাথে তার স্ত্রী রহিমার সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। তার স্ত্রীর কাছে থেকে সন্তান বেড়ে উঠুক সে তা চান না। তাই সে কয়েক ঘন্টার নবজাতককে চুরি করার পন্থা অবলম্ভন করেন।
সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, শিশুটির মা রহিমা খাতুন বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দিলে সাদ্দামকে আটক করা হয়েছে। পাচারের উদ্দেশ্যে চুরি করা সন্তানটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। আজ শুক্রবার সাদ্দামকে পাবনা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।