প্রধান মেনু

সাঁথিয়ায় পরকীয়ায় বাধা দেয়ার যুবককে ছুরিকাঘাত

সাঁথিয়া প্রতিনিধিঃ
পাবনার সাঁথিয়ায় পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় ছুরিকাঘাতে জুয়েল রানা (৩৮) নামের এক যুবক আহত করা হয়েছে। পরিবারের লোক উদ্ধার করে প্রথমে সাঁথিয়া পরে পাবনা ভর্তি করা হয়ে। অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজশাহী মেডিক্যালে নেয়া হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানান স্বজনরা। সে উপজেলার শ্বশদিয়া গ্রামের মৃত ওমর আলীর ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে গত রবিবার দিনগত রাত সোয়া ৯ টায় উপজেলার শ্বশদিয়া গ্রামে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গাগড়াখালী গ্রামের আব্দুস ছালামের ছেলে আল আমিন ওই রাতে শ্বশদিয়া গ্রামের প্রবাসীর স্ত্রীর প্রেমের সম্পর্কে দেখা করতে যায়। পথিমধ্যে রাত সোয়া ৯ টায় দিকে শ্বশদিয়া গ্রামের মৃত ওমর আলীর ছেলে জুয়েল রানার সঙ্গে পরক্রিয়ার বিষয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে জুয়েল রানার পেটে ছুরিকাঘাত করে আলামিন পালিয়ে যায়। তার ডাকচিৎকারে লোকজন ও আত্ম স্বজনরা এসে দ্রুত সাঁথিয়া হাসপাতালে আনে। অবস্থা অবন্নতি হওয়ায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখান থেকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এব্যাপারে জয়েল রানার ভাই সেলিম রেজা স্বপন বাদী হয়ে সাঁথিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। এ ব্যপারে সাঁথিয়া থানার ওসি আসাদুজ্জামান বলেন, রাতেই আল আমিনকে আটক করেছে, মামলার প্রস্তুতি চলছে।