প্রধান মেনু

সিংড়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় অন্তসত্ত্বা গৃহবধুসহ আহত-৫

নাটোরের সিংড়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রোকেয়া বেগম (২৫) নামের ৩ মাসের অন্তসত্ত্বা এক গৃহবধু আহত হয়েছে। আহত রোকেয়া সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় ১০ জনকে
আসামী করে সিংড়া থানায় মামলা দায়ের করেছে গৃহবধু রোকেয়ার স্বামী আজিম উদ্দিন। গত বৃহষ্পতিবার সকালে উপজেলার শুকাশ
ইউনিয়নের ধুরশন গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ধুরশন গ্রামের মৃত একাব্বর প্রামাণিকের ছেলে আজিম উদ্দিন (২৮) এবং একই গ্রামের মৃত আজাম উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলামের (৫০) জমি-জমা বাবদ ও বাড়ির
রাস্তা নিয়ে বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে ঘটনার দিন সকালে সাইফুল ৮/১০ জনের একটি দল নিয়ে বিরোধপূর্ণ জায়গা দখল করতে আসে।
এসময় আজিম বাধা দিলে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও উত্তেজনা শুরু হয়। একপর্যায়ে দখলকারীরা আজিম উদ্দিনের বাড়ির দিকে এগিয়ে যায় এবং ধানের খোলায় থাকা তাঁর ৩ মাসের অন্তসত্ত্বা স্ত্রী রোকেয়া বেগমকে (২৫) মারপিট শুরু করে। এসময় রোকেয়াকে বাঁচাতে এগিয়ে

আসলে তাঁেদরকেও মারপিট করে হামলাকারীরা। প্রতিপক্ষের হামলায়
রোকেয়া বেগম অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় উদ্ধার
করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্বজনরা। এছাড়া এঘটনায়
আরও ৫ জন আহত হয়। আহতরা স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা
নিয়েছেন।
শুকাশ ইউনিয়ন পষিদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ জানান, আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। রাস্তার জায়গা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে এই ঘটনা ঘটেছে। সেদিন দুই পক্ষের সাথে কথা হয়েছে আহত রোকেয়া চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরলে উভয় পক্ষকে নিয়ে বসে মিমাংসা করা হবে।
সিংড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুর-এ আলম সিদ্দিকী জানান, ঘটনার দিন পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। রোকেয়ার স্বামী আজিম উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।