প্রধান মেনু

সিংড়ায় ভাতিজিকে ধর্ষনের পর হত্যা করলো চাচা

নাটোর প্রতিনিধি
নাটোরের সিংড়ায় রেশমি খাতুন নামে এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে আপন চাচা। রবিবার বেলা ২টার দিকে সিংড়া উপজেলার ইটালী ইউনিয়নের দেওগাছা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় চাচা শাহাদৎ হোসেন (৩০) কে আটক করে পুলিশের সোপর্দ করেছে এলাকাবাসীরা। কলেজছাত্রী রেশমি খাতুন স্থানীয় বামিহাল অর্নাস কলেজের এইচএসসির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী এবং দেওগাছা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে।
পুলিশ ও এলাকাবাসীরা জানায়, উপজেলার পাকুরিয়া গ্রামে রেশমি খাতুনের দাদা মারা যায়। বাড়ির সবাই সেই জানাযা যায়। এসময় রেশমি খাতুন বাড়িতে একাই ছিল। এই সুযোগে আপন চাচা শাহাদৎ হোসেন ভাতিজী রেশমি খাতুনকে ধর্ষন করে ঘরের রেলিং ওপর শ্বাস করে হত্যা করে। পরে এলাকাবাসীরা চাচা শাহাদৎ হোসেনকে আটক করে পুলিশ খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। আটক শাহাদৎ হোসেন মসলেম উদ্দিনের ছেল।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান, রেশমি খাতুনকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। পরবর্তীতে তদন্ত করে ঘটনার রহস্য বেরিয়ে আসবে।