প্রধান মেনু

সুজানগর যুবলীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকীতে দোয়া মাহফিল ও কেক কেটে উদযাপন

সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধিঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ৩ বারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৩ তম জন্মবার্ষিকীতে দোয়া মাহফিল ও কেক কেটে উদযাপন করা হয়েছে। শনিবার সকালে সুজানগর উপজেলা আওয়ামীযুবলীগের উদ্যোগে আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে প্রধান অতিথি থেকে কেক কাটেন পাবনা-২ আসনের সংসদ সদস্য আহমেদ ফিরোজ কবির। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীনুজ্জামান শাহীন, জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা, সাইদুর রহমান সাইদ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল জলিল বিশ্বাস, এস এম সামসুল আলম, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আব্দুস সাত্তার, পৌর আ.লীগের সভাপতি ফেরদৌস আলম ফিরোজ, সাধারণ সম্পাদক শেখ মিলন, নব-নির্বাচিত উপজেলা আওয়ামীযুবলীগের সভাপতি সরদার রাজু আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান সাইদ, পৌর আওয়ামীযুবলীগের সভাপতি জুয়েল রানা, সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শরিফ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম তমাল, সাধারণ সম্পাদক শেখ তুষার, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি এসএম সোহাগ হোসেন, এন এ কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রেদওয়ন নয়ন প্রমুখ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমান ও শেখ ফজিতুন্নেছা মুজিবের প্রথম সন্তান শেখ হাসিনা। ভাইবোনদের মধ্যে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা ছাড়া কেউই জীবিত নেই। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে গুলি করে হত্যা করে তৎকালিন সেনাবাহিনীর কিছু বিপথগামী সদস্যরা। ১৯৮১ সালের ১৩-১৫ ফেব্রুয়ারি আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে শেখ হাসিনার অনুপস্থিতিতে তাকে দলের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। দলের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর ওই বছরের ১৭ মে দেশে প্রত্যাবর্তন করেন তিনি। এরপর দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে। বিগত ১/১১ এর পর ২০০৮ সালের নির্বাচনে জিতে ফের ক্ষমতায় আসে আওয়ামী লীগ। সেই থেকে টানা তিন মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর পদে রয়েছেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা।