প্রধান মেনু

প্রধান মন্ত্রীর জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেও আসামি গ্রেফতার হয়নি

সোমবারের অর্ধদিবস হরতালের সমর্থনে ঈশ্বরদীর পাঁচস্থানে পথসভা ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত

মুক্তিযোদ্ধা-জনতার ব্যানারে অনুষ্ঠিত জনসভা থেকে আগামিকাল সোমবার ডাকা অর্ধ দিবস হরতালের সমর্থনে ঈশ্বরদীতে ৫টি পথসভা ও বিক্ষোভ মিছিল করা হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধা-জনতার ব্যানারে আজ রবিবার সকাল থেকে ঈশ্বরদী রেলওয়ে গেইট,পুরাতন বাস স্ট্যান্ড ও পোস্ট অফিস মোড়সহ বিভিন্নস্থানে এসব কর্মসুচি পালন করা হয়। পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও ঈশ্বরদী উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান বিশ্বাস পথসভা ও বিক্ষোভ মিছিলের উদ্বোধন করেন। আওয়ামীলীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা চান্নার সভাপতিত্বে এসব পথ সভায় বক্তব্য দেন,ঈশ্বরদী উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক,জাসদ পাবনা জেলা শাখার নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন,শ্রমিকলীগের কেন্দ্রিয় নেতা বুলবুল হোসেন,মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান ফান্টু,আইয়ুব আলী,সিপিবি নেতা আব্দুর রাজ্জাকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। বক্তারা বলেন,ঈশ্বরদীর জনপ্রিয় আওয়ামীলীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিমের প্রকৃত হত্যাকারী গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবিতে ঈশ্বরদীতে ডাকা অর্ধ দিবস হরতাল সফল করতে হবে। তারা সোমবার সকাল থেকে ঈশ্বরদীর সকল প্রকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,কলকারখানা,শ্রমিক সংগঠন,ব্যবসা প্রতিষ্ঠান,রিক্সাসহ সকল প্রকার যানবাহন বন্ধ রেখে হরতাল সফল করার জন্য অনুরোধ জানান। গত বুধবার বিকেলে স্থানীয় মাহবুব আহমেদ স্মৃতি মঞ্চে মুক্তিযোদ্ধা-জনতার ব্যানারে অনুষ্ঠিত বিরাট জনসভা থেকে আওয়ামীলীগ সভাপতি নায়েব আলী বিশ্বাস আগামিকাল সোমবার ঈশ্বরদীতে অর্ধদিবস হরতালের ডাক দেন। উল্লেখ্য,গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাত নয়টায় রুপপুরস্থ নিজ বাড়ির গেটে মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিমকে সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করে। অনাকঙ্খিত এ হত্যাকান্ডের পর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ঈশ্বরদী ও পাকশীর পক্ষ থেকে একাধিকবার দাশুড়িয়া ট্রাফিক মোড়,ঈশ্বরদী বাজার রোড ও রুপপুর পাকার মোড়ে মহাসড়ক অবরোধ করে সর্বকালের সর্ববৃহৎ মানববন্ধন-সমাবেশ করা হয় প্রকৃত আসামিদের গ্রেফতারের দাবিতে । একাধিকস্থানে প্রতিবাদ সভাও করা হয়। এমনকি একই দাবিতে ঢাকা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনেও আসামি গ্রেফতার ও হত্যাকান্ডের সুষ্ঠ বিচার দাবিতে প্রধান মন্ত্রীর জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়। এসব কর্মসুচিতে মুক্তিযোদ্ধা,আওয়ামীলীগ নেতা,জাসদ নেতাসহ বক্তারা প্রকৃত হত্যাকারীর নাম উল্লেখ করে গ্রেফতারের জোর দাবি জানান । এর পরও প্রকৃত আসামি গ্রেফতার হয়নি।