প্রধান মেনু

(Untitled)

পাবনা প্রতিনিধিঃ
করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলার সার্বিক বিষয় নিয়ে সোমবার পাবনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক বিশেষ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সদর-৫ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।
পাবনার জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের
চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল, সিভিল সার্জন ডা: মেহেদী ইকবাল, ডিপুটি সিভিল সার্জন ডা: কেএম আবু জাফর, পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারি পরিচালক ডা: আবুল হোসেন, পাবনা সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোশারফ হোসেন, পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান, সাধারন সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদ, পাবনা সংবাদপত্র পরিষদ সভাপতি আব্দুল মতীন খান, পাবনা পৌরসভার মেয়র কামরুল হাসান মিন্টু, পাবনা চেম্বার অব কমার্সের
সিনিয়র সহ সভাপতি আলী মূর্তুজা বিশ্বাস সনি, পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র কনসাল্ট্যান্ট ডা: সালেহ মোহাম্মদ, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন পাবনা জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ডা: আকসাদ আল মাসুর
আনন, ডা: খন্দকার জাহেদী রুমিসহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ।
সভায় সদর-৫ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স বলেন, কোভিড-১৯
মোকাবেলায় চিকিৎসক, নার্সসহ স্বাস্থ্যকর্মীরা প্রথম শ্রেণীর সৈনিক, এ কথা বলার অপেক্ষা রাখেনা। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারাই আছেন রোগীর পাশে।
তাছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনা ঝুঁকির মধ্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানে প্রশংসিতও হচ্ছেন তারা। কিন্তু মাত্র কয়েক জন স্বাস্থ্যকর্মীর দায়িত্বে অবহেলার কারণে নেতিবাচক প্রচারণায় প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে পুরো স্বাস্থ্যখাত। তিনি আরো
বলেন, করোনা মোকাবেলায় চিকিৎসক ছাড়াও সাংবাদিক, ব্যাংকার ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা বেশি ঝুঁকিতে। এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সমন্বিত কার্যক্রমে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে।
সবাইকে যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসতে হবে। সাংবাদিক, রাজনৈতিক
নেতাকর্মী, উদ্যোক্তা, বেসরকারি শিল্প-কলকারখানা মালিককে এ দুর্যোগ মোকাবিলায় স্বউদ্যোগে ভূমিকা রাখতে হবে। তিনি বলেন,পাবনায় অতি দ্রুত পিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হবে। এছাড়া শুধু করোনা রোগী নয়, সাধারন রোগীর চিকিৎসা সেবাও নিশ্চিত করতে চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানান।