ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি ঃ
পাবনার ভাঙ্গুড়ায় নবম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে তুলে নিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পরের দিন শনিবার রাতে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার ও বখাটেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা ভাঙ্গুড়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। রবিবার বখাটেকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রাঙ্গালীয়া গ্রামের লিটন মিয়ার কন্যা নবম শ্রেণি পড়ুয়া মৃদুলতাকে (ছদ্মনাম) চাটমোহর উপজেলার সমাজ গ্রামের আবু বকরের ছেলে আল-আমিন (২৪) দীর্ঘদিন উত্যক্ত করে আসছিল। গত শুক্রবার আল-আমিন জোরপূর্বক ঐ স্কুল ছাত্রীকে বাড়ি থেকে ভাঙ্গুড়া আসার সময় পথ থেকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষকের বোনের বাড়িতে রেখে তাকে ধর্ষণ করে। শনিবার রাতে ধর্ষিতাকে ভাঙ্গুড়া পৌর সদরের কালিবাড়ি বাজারে ফেলে রেখে যাওয়ার সময় পুলিশ ধর্ষিতাকে উদ্ধার ও ধর্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author