প্রধান মেনু

স্ত্রী ছেড়ে বান্ধবীকে নিয়ে সরকারি বাসভবনে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী!

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন হচ্ছে ১০ ডাউনিং স্ট্রিট। এখানে বিজয়ী প্রধানমন্ত্রী স্বামী কিংবা স্ত্রীকে নিয়ে উঠেন। এটাই সেখানের রেওয়াজ। কিন্তু যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে নিয়ে দেখা দিয়েছে বিপত্তি। প্রশ্ন উঠেছে তিনি কাকে নিয়ে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটে উঠছেন?

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, ঘোষণা অনুযায়ী আগামী সেপ্টেম্বরে মারিনা হুইলারের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হচ্ছে ৫৫ বছর বয়সী বরিস জনসনের। তাদের চার ছেলে-মেয়ে রয়েছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, বরিস জনসনের ৩১ বছর বয়সী একজন প্রেমিকা আছেন। তার নাম ক্যারি সিমন্ডস। প্রেমিকাকে নিয়েই বরিস সরকারি বাসভবনে উঠছেন বলে এমনটা অনুমান করা যাচ্ছে। তবে বিষয়টি এখনো নিশ্চিত নয়। কারণ স্ত্রী মারিয়ার সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদ হয়নি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর।

স্ত্রী মারিনা হুইলারের সঙ্গে যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ছবিটি ২০১৪ সালের।

লন্ডনের রয়াল হোলয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতির অধ্যাপক ড. নিকোলাস অ্যালেন রয়টার্সকে বলেন, ‘এটা খুবই কঠিন যে, বিয়ে করা স্ত্রী থাকা অবস্থায় অন্য কোনো নারীকে নিয়ে ডাউনিং স্ট্রিটে হাঁটা।’

শেষ পর্যন্ত যদি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে তার প্রেমিকাকে নিয়ে সরকারি বাসভবনে উঠেন তাহলে তা হবে ঐতিহাসিক ঘটনা। কারণ ডাউনিং স্ট্রিটের ইতিহাসে কেনো প্রধানমন্ত্রী তার প্রেমিকাকে নিয়ে সেখানে উঠেননি।