আটঘরিয়ার কৃষক দুলাল মৃধা চাষী পর্যায়ে উন্নতমানের বীজ উৎপাদনে সফলতা পেয়েছে

মোঃ জিল্লুর রহমান রানা

পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার আদর্শ কৃষক মোঃ দুলাল মৃধা চাষী পর্যায়ে উন্নতমানের বীজ উৎপাদন করে সফলতা পেয়েছে। এতেকরে তিনি যেমন আর্থিক ভাবে স্বচ্ছল হচ্ছেন তেমনি এলাকার সাধারণ কৃষকরা উন্নতমানের বীজ হাতের কাছে পেয়ে উপকৃত হচ্ছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসের সহায়তায় এই উন্নতমানের বীজ উৎপাদনকরে আচ্ছে।

জানাযায়, উপজেলার আটঘরিয়া পৌরসভার হাজিপাড়া মহল্লার মোঃ মুনজুর মৃধার ছেলে মোঃ দুলাল মৃধা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসের সাথে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রক্ষা করে আধুনিক প্রযুক্তি গ্রহণের মাধ্যমে নিজস্ব ১০ বিঘা ও বন্ধক নেয়া ৩ বিঘা জমিতে চাষাবাদ করেন। এসকল জমিথেকে উৎপাদিত ফসল আধুনিক উপায়ে সংরক্ষন করে বীজ হিসাবে প্রান্তিক কৃষক পর্যায়ে বিক্রি করেন।

এবিষয়ে সফল কৃষক মোঃ দুলাল মৃধা বলেন, আমার নিজের ১০ বিঘা জমিতে চলতি রোপা আমন মৌসুমে জিঙ্ক সমৃদ্ধ ব্রি ধান-৭২, ব্রি ধান-৫১ এবং বিনা-৭ জাতের প্রদর্শনী প্লট করেছি। এই জমি থেকে প্রাপ্ত ধান আধুনিক উপায়ে সংরক্ষন করে কৃষক পর্যায়ে বীজ হিসাবে বিক্রি করা হবে। তিনি আরও বলেন, এই মৌসুমে ৩ বিঘা জমি বন্ধক নিয়ে সিম ও বারি-৩ জাতের মাসকালাই এর চাষ করেছি।

এবিষয়ে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা জাহিদ হাসান হিরোক জানান, আদর্শ কৃষক মোঃ দুলাল মৃধা আমাদের উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসের সাথে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রক্ষা করেন। আমি নিজেও সার্বিক সহযোগীতায় করে থাকি।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, আদর্শ কৃষক মোঃ দুলাল হোসেন মাঠ পর্যায়ে আইপিএম ও আইএফএম এর প্রশিক্ষণ করে একজন দক্ষ চাষীতে রূপান্তর হয়েছে। তিনি হাজিপাড়া আইএফএম কৃষক মাঠ স্কুলের সভাপতি। তিনি ঐ এলাকার কৃষকদের সংগঠিত করায় অগ্রনী ভূমিকা পালন করে থাকে।

এলাকার সাধারণ কৃষক মনে করেন এধরনের কৃষকদের সরকারী ভাবে পৃষ্টপোষকতা ও উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রান্তিক পর্যায়ে কৃষকদের মান উন্নয়ন করা অনেক সহজ।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author