আটঘরিয়ায় ৫৭৪ জন কৃষককে বিনামূল্যে ৫ লাখ টাকার কৃষি উপকরণ তুলে দিলেন ভূমিমন্ত্রী

ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এম.পি. পাবনা জেলার আটঘরিয়া উপজেলার ৫৭৪ জন কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে ৫ লাখ টাকার কৃষি উপকরণ তুলে দেন।
আজ বিকালে আটঘরিয়া উপজেলা মিলনায়তনে কৃষি প্রণোদনার আওতায় সরিষা, খেসারী, ভূট্টা ও বিটিবেগুন বিনামূল্যে সার ও বীজ প্রধান অতিথি হিসেবে ভূমিমন্ত্রী কৃষকদের হাতে তুলে দেন।
কৃষি উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী শরীফ বলেন, কৃষক বান্ধব জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার ২ লাখ ৩১ হাজার কৃষককে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে বিভিন্ন প্রকার বীজ ও সার বিতরণ করেছে। সরকার বিগত অর্থবছরে ৬ হাজার ৪২৫ কোটি ৫১ লাখ ৩২ হাজার টাকার সার, বিদ্যুৎ, কৃষি উপকরণ ইত্যাদি কৃষি উপকরণে ভর্তুকি হিসেবে প্রদান করেছে। চলতি বাজেটে ভর্তুকি হিসেবে ৯ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। মন্ত্রী আরও বলেন, প্রতিবছর কৃষিক্ষেত্রে ১০টি বিষয়ে অবদান স্বরূপ বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। এতে করে কৃষকরা কৃষি ফলনে আরও উৎসাহিত হচ্ছে এবং দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে এগিয়ে চলেছে। মন্ত্রী বলেন, সরকার কৃষকদের আর্থ-সামাজিক ব্যবস্থার উন্নয়নে সেচ কার্যক্রম, খাল পুন:খনন, ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষীদের প্রণোদনা প্রদান অব্যাহত রেখেছে। ভূমিমন্ত্রী শরীফ আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা চান এদেশের তাঁতী ভালো তাঁতের বুনন এর শাড়ি তাঁর স্ত্রীকে পড়াতে শিখাবে, চাষী তার পরিবারের সদস্যদের পেট ভরে আহার যোগাবে, কৃষক যদি আহারই না যোগাতে পারে তাহলে কি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা স্বার্থক হয়? তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা এদেশের মৎস্য, তাঁতী, জেলে, কুমার-ই শুধু না, তিনি রোহিংগা সংকটেও সকলের সুখ দুঃখ ভাগ করে নিতে চান। মন্ত্রী বলেন, বয়স্ক ভাতা, পঙ্গু ভাতা, বিধবা ভাতা, শিক্ষা ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, সবধরনের ভাতাই মানুষের কল্যাণে দেওয়া হচ্ছে।
আটঘরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আকরাম আলীর সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে আটঘরিয়া উপজেলা কৃষি অফিসার প্রশান্ত কুমার সরকার বক্তব্য রাখেন।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author