শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে -এ্যাড.আবুল কালাম আজাদ এমপি

ঈশ্বরদী ॥ শনিবার বিকেলে বিলমারিয়া ইউনিয়নে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ আনন্দ শোভাযাত্রা ও প্রাক নির্বাচনী মহরা বের করা হয়। এ শোভ যাত্রার নেতৃত্ব দেন এ্যাড.আবুল কালাম আজাদ এমপি, আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলী,শফিকুল ইসলাম স্বপন, গোলাম কাওসার রহমান,সেলিম রেজা, মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ ও রবিউল ইসলাম। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চের ভাষনকে ইউনেস্কো কর্তৃক স্বীকৃতি দেওয়া এবং প্রাক নির্বাচনী মহরা উপলক্ষে শুধুমাত্র বিলমারিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে পালন করা হয় এসব কর্মসুচি। হাজার হাজার বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ বিভিন্ন রঙের গেঞ্জি, ফেস্টুন,প্লেকার্ড ও জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে এতে অংশ নেন। মাটি ও মানুষের জননন্দিত নেতা হিসেবে পরিচিত এ্যাড.আবুল কালাম আজাদ এমপি,আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু ও সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলীকে পেয়ে আনন্দ শোভাযাত্রা ও প্রাক নির্বাচনী মহরায় অংশ গ্রহণকারী নেতাকর্ম,সমর্থকরা আনন্দে আতœহারা হয়ে ওঠে।আনন্দ শোভাযাত্রার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ্যাড.আবুল কালাম আজাদ এমপি বলেন,শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। গ্রামের পর গ্রাম আলোকিত হচ্ছে। রাস্তাঘাটের উন্নয়ন হচ্ছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন হচ্ছে। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত কল্পে কাজ করছে। সন্ত্রাসী ও মাদক নির্মূলে কাজ করছে। নানা উন্নয়ন মুখি কাজ করে দেশকে যখন এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে,ঠিক তখনই লালপুর বাগাতিপাড়ার কয়েকজন দলছুট নেতা সরকার বিরোধী অপকর্মে লিপ্ত হয়েছে। আওয়ামীলীগের ক্ষতির জন্য দলের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা জনবিচ্ছিন্ন ঐসব ব্যক্তিরা সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্থ করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তাদের ঐসব জনস্বার্থ ও সরকার বিরোধী কর্মকান্ড এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কাজে বাধা দানকারীদের বিলমারিয়া ইউনিয়নসহ কোথাও ঠাঁই হবেনা। তিনি বলেন,জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রচুর উন্নয়ন কাজ হচ্ছে। উন্নয়নের কারণে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নয়নের ছোঁয়ায় বিলমারিয়াসহ সকল এলাকা এগিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষাঙ্গনেও অভ’তপূর্ব পরিবর্তণ হচ্ছে। গত চার বছরে টিআর কাবিখার সুষ্ঠু বন্টন,সোলার বিতরণ,অর্থনৈতিক অঞ্চল,সুগারমিলে শিল্প পার্ক,বয়স্ক,বিধবা ও পঙ্গুভাতা প্রদানসহ শিক্ষাঙ্গনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা, চুরি, ডাকাতি,ছিনতাই ও রাহাজানিসহ বিভিন্ন প্রকার সন্ত্রাসী নির্মূল করা হয়েছে। অনেক উন্নয়ন মূলক কাজ চলামান রয়েছে। কিছু কাজ পাইপ লাইনে রয়েছে যা শীঘ্রই শুরু হবে। আমার এলাকায় এখন নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে সন্ত্রাস মুক্ত পরিবেশে সাংস্কৃতি চর্চার মানও বৃদ্ধি হচ্ছে। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর সভাপতিত্বে¡ বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলী ও রবিউল ইসলাম। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু বলেন,ঈশ্বরদী ইউনিয়ন বিএনপির দুর্গ ছিল। একইভাবে অন্যান্য ইউনিয়নেও আওয়ামীলীগের কর্মকান্ডে দূর্বল হচ্ছে। বিএনপি নেতা পটলের মৃত্যু এবং এমপি কালাম ভাইয়ের উন্নয়নমুখি কর্মকান্ডে লালপুর –বাগাতিপাড়া এলাকা এখন আওয়ামীলীগের দুর্গে পরিণত হয়েছে। সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলী বলেন, এমপি কালাম ভাইয়ের উন্নয়ন মুখি কর্মকান্ড এখন লালপুর বাগাতিপাড়া এলাকার জনবিচ্ছিন্ন কতিপয় নেতাদের গলার ঘাঁড় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সেজন্যই আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ স্গংঠনের কিছু দলছুট পান্ডারা আওয়ামীলীগ তথা কালাম ভাইয়ের রাজনৈতিক ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। তারা নানা অপচেষ্টায় বিএনপি জামায়াতের সহযোগি হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশি বলে প্রচার চালিয়ে আমাদের ঐক্য ও শক্তিকে খাটো করার অপচেষ্টা করছে। তারা আওয়ামীলীগের মূল শ্রতধারার গতিকে রুদ্ধ করতে চাচ্ছে। ঐ চক্রটি প্রয়াত এমপি মহোদয়ের বাড়িসহ বিভিন্নস্থান থেকে অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন।তিনি বলেন, কালাম ভাইয়ের মত শ্রেষ্ঠ নেতৃত্বকে গতিরোধ করার চেষ্টা এবং বিএনপি জামায়াতকে সহযোগিতা না করে আওয়ামীলীীগের মুল ¯্রােত ধারায় অংশ নিয়ে কাজ করুন। এতে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে সহযোগিতা করা হবে এবং জাতির পিতার আতœার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে এবং এলাকার মানুষও খুশি হবে। বিএনপির মন্ত্রী পটলের মৃত্যুর পর এলাকার মানুষ দীর্ঘশ্বাস ফেলে স্বস্তি পাচ্ছেন। বিএনপির এলাকা এখন আওয়ামীলীগের দুর্গে পরিণত হয়েছে।
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে -এ্যাড.আবুল কালাম আজাদ এমপি
তৌহিদ আক্তার পান্না,ঈশ্বরদী ॥ শনিবার বিকেলে বিলমারিয়া ইউনিয়নে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ আনন্দ শোভাযাত্রা ও প্রাক নির্বাচনী মহরা বের করা হয়। এ শোভ যাত্রার নেতৃত্ব দেন এ্যাড.আবুল কালাম আজাদ এমপি, আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলী,শফিকুল ইসলাম স্বপন, গোলাম কাওসার রহমান,সেলিম রেজা, মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ ও রবিউল ইসলাম। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চের ভাষনকে ইউনেস্কো কর্তৃক স্বীকৃতি দেওয়া এবং প্রাক নির্বাচনী মহরা উপলক্ষে শুধুমাত্র বিলমারিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে পালন করা হয় এসব কর্মসুচি। হাজার হাজার বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ বিভিন্ন রঙের গেঞ্জি, ফেস্টুন,প্লেকার্ড ও জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে এতে অংশ নেন। মাটি ও মানুষের জননন্দিত নেতা হিসেবে পরিচিত এ্যাড.আবুল কালাম আজাদ এমপি,আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু ও সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলীকে পেয়ে আনন্দ শোভাযাত্রা ও প্রাক নির্বাচনী মহরায় অংশ গ্রহণকারী নেতাকর্ম,সমর্থকরা আনন্দে আতœহারা হয়ে ওঠে।আনন্দ শোভাযাত্রার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ্যাড.আবুল কালাম আজাদ এমপি বলেন,শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। গ্রামের পর গ্রাম আলোকিত হচ্ছে। রাস্তাঘাটের উন্নয়ন হচ্ছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন হচ্ছে। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত কল্পে কাজ করছে। সন্ত্রাসী ও মাদক নির্মূলে কাজ করছে। নানা উন্নয়ন মুখি কাজ করে দেশকে যখন এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে,ঠিক তখনই লালপুর বাগাতিপাড়ার কয়েকজন দলছুট নেতা সরকার বিরোধী অপকর্মে লিপ্ত হয়েছে। আওয়ামীলীগের ক্ষতির জন্য দলের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা জনবিচ্ছিন্ন ঐসব ব্যক্তিরা সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্থ করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তাদের ঐসব জনস্বার্থ ও সরকার বিরোধী কর্মকান্ড এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কাজে বাধা দানকারীদের বিলমারিয়া ইউনিয়নসহ কোথাও ঠাঁই হবেনা। তিনি বলেন,জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রচুর উন্নয়ন কাজ হচ্ছে। উন্নয়নের কারণে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নয়নের ছোঁয়ায় বিলমারিয়াসহ সকল এলাকা এগিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষাঙ্গনেও অভ’তপূর্ব পরিবর্তণ হচ্ছে। গত চার বছরে টিআর কাবিখার সুষ্ঠু বন্টন,সোলার বিতরণ,অর্থনৈতিক অঞ্চল,সুগারমিলে শিল্প পার্ক,বয়স্ক,বিধবা ও পঙ্গুভাতা প্রদানসহ শিক্ষাঙ্গনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা, চুরি, ডাকাতি,ছিনতাই ও রাহাজানিসহ বিভিন্ন প্রকার সন্ত্রাসী নির্মূল করা হয়েছে। অনেক উন্নয়ন মূলক কাজ চলামান রয়েছে। কিছু কাজ পাইপ লাইনে রয়েছে যা শীঘ্রই শুরু হবে। আমার এলাকায় এখন নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে সন্ত্রাস মুক্ত পরিবেশে সাংস্কৃতি চর্চার মানও বৃদ্ধি হচ্ছে। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর সভাপতিত্বে¡ বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলী ও রবিউল ইসলাম। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু বলেন,ঈশ্বরদী ইউনিয়ন বিএনপির দুর্গ ছিল। একইভাবে অন্যান্য ইউনিয়নেও আওয়ামীলীগের কর্মকান্ডে দূর্বল হচ্ছে। বিএনপি নেতা পটলের মৃত্যু এবং এমপি কালাম ভাইয়ের উন্নয়নমুখি কর্মকান্ডে লালপুর –বাগাতিপাড়া এলাকা এখন আওয়ামীলীগের দুর্গে পরিণত হয়েছে। সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলী বলেন, এমপি কালাম ভাইয়ের উন্নয়ন মুখি কর্মকান্ড এখন লালপুর বাগাতিপাড়া এলাকার জনবিচ্ছিন্ন কতিপয় নেতাদের গলার ঘাঁড় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সেজন্যই আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ স্গংঠনের কিছু দলছুট পান্ডারা আওয়ামীলীগ তথা কালাম ভাইয়ের রাজনৈতিক ক্ষতি করার চেষ্টা করছে। তারা নানা অপচেষ্টায় বিএনপি জামায়াতের সহযোগি হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশি বলে প্রচার চালিয়ে আমাদের ঐক্য ও শক্তিকে খাটো করার অপচেষ্টা করছে। তারা আওয়ামীলীগের মূল শ্রতধারার গতিকে রুদ্ধ করতে চাচ্ছে। ঐ চক্রটি প্রয়াত এমপি মহোদয়ের বাড়িসহ বিভিন্নস্থান থেকে অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন।তিনি বলেন, কালাম ভাইয়ের মত শ্রেষ্ঠ নেতৃত্বকে গতিরোধ করার চেষ্টা এবং বিএনপি জামায়াতকে সহযোগিতা না করে আওয়ামীলীীগের মুল ¯্রােত ধারায় অংশ নিয়ে কাজ করুন। এতে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে সহযোগিতা করা হবে এবং জাতির পিতার আতœার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে এবং এলাকার মানুষও খুশি হবে। বিএনপির মন্ত্রী পটলের মৃত্যুর পর এলাকার মানুষ দীর্ঘশ্বাস ফেলে স্বস্তি পাচ্ছেন। বিএনপির এলাকা এখন আওয়ামীলীগের দুর্গে পরিণত হয়েছে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author